শীর্ষ ইউরোপিয়ান অ্যাপ্লায়েন্স ব্র্যান্ড বেকো উদ্ভাবন করলো ‘হাইজিন শীল্ড’,

সান বিডি ডেস্ক || প্রকাশ: ২০২০-১০-১৭ ১৬:১৫:৩৭ || আপডেট: ২০২০-১০-১৭ ১৬:১৫:৩৭

ইউরোপের শীর্ষস্থানীয় হোম অ্যাপ্লায়েন্স ব্র্যান্ড বেকো বিশ্বব্যাপী করোনা দুর্যোগের পরিপ্রেক্ষিতে নিজস্ব গবেষণা আর পরীক্ষা-নিরীক্ষার আলোকে উদ্ভাবন করলো ‘হাইজিন শীল্ড’ হোম অ্যাপ্লায়েন্স সিরিজ যাতে রয়েছে রেফ্রিজারেটর, ওয়াশিং মেশিনের মতো সাতটি গৃহস্থালী পণ্য । ইউভি লাইট টেকনোলজির তাপ এবং বাষ্প ব্যবহার করে এসব অ্যাপ্লায়েন্স করোনাসহ ৯৯ শতাংশেরও বেশি ব্যাকটেরিয়া আর ভাইরাস দূর করে।
করোনা প্যানডেমিক সৃষ্ট ‘নিউ নর্মাল’ বাস্তবতার সাথে মানিয়ে নিতে বেকো হাইজিন শীল্ড সিরিজের পণ্যগুলোতে প্যাকেটজাত ও অন্যান্য খাবার, জামা কাপড় ও অন্যান্য জিনিস জীবাণুমুক্ত করার জন্য রয়েছে ইন-বিল্ট জীবাণুনাশক প্রোগ্রাম ও ফাংশন সমূহ ।

বেকো হাইজিন শীল্ড পোর্টফোলিওর সাতটি পণ্য হলো: জীবাণুনাশকরণ ড্রয়ারসহ কম্বি রেফ্রিজারেটর, হাইজিন শীল্ড ওয়াশিং মেশিন, হাইজিন শীল্ড ওয়াশার ড্রাইয়ার, স্যাচুরেটেড স্টিম ও হিটসহ বিল্ট-ইন ওভেন, হাইজিন শীল্ড ডিশ ওয়াশার, ইউভি লাইট প্রযুক্তিসহ টাম্বল ড্রাইয়ার এবং ইউভি ক্লিনিং ক্যাবিনেট।

তুরস্কের আর্চেলিকের কোম্পানীর মালিকানাধীন শীর্ষস্থানীয় ইউরোপিয়ান ব্র্যান্ড বেকো। আর বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় কনজ্যুমার অ্যাপ্লায়েন্স কোম্পানী সিঙ্গার বাংলাদেশ লিমিটেডের সিংহভাগ অংশীদারিত্ত্বের মালিকানাও তুরস্কের আর্চেলিক কোম্পানীর । একমাত্র সিঙ্গারই বাংলাদেশে বেকো ব্র্যান্ডের হোম অ্যাপ্লায়েন্স সামগ্রী বিক্রি করছে।

হাইজিন শীল্ড উদ্ভাবন উপলক্ষে সিঙ্গার বাংলাদেশ লিমিটেডের চীফ এক্সিকিউটিভ অফিসার এম. এইচ. এম. ফাইরুজ বলেন, “ কোভিড –১৯ সৃষ্ট চলমান মহাদুর্যোগে এমন একটি মানবিক প্রযুক্তি উদ্ভাবনের অংশীদার হতে পেরে, আর্চেলিক পরিবারের একজন সদস্য হিসেবে আমরা গর্বিত বোধ করছি । আমরা আশা করছি খুব শীঘ্রই বাংলাদেশের মানুষের জন্য এই ‘হাইজিন শীল্ড’ সিরিজের পণ্যসমূহ আমরা বাজারজাত করবো । ”

চলতি মাসের ০৭ অক্টোবর এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে যুগান্তকারী এই হাইজিন শীল্ড পণ্যসামগ্রীর আনুষ্ঠানিক ঘোষণা ও পণ্য উন্মোচনের সময় উপস্থিত ছিলেন আর্চেলিকের চীফ এক্সিকিউটিভ অফিসার হাকান বুলগুরলু, প্রতিষ্ঠানটির চীফ মার্কেটিং অফিসার জেইনেপ এলিম উযুন এবং বিশ্বখ্যাত চিকিতসাবিজ্ঞানী ও গবেষকগণ ।

সংবাদ সম্মেলনে আর্চেলিকের সিইও হাকান বুলগুরলু বলেন, ‘বেকোর এই উদ্ভাবন এবং নতুন সিরিজের পণ্য বাজারে নিয়ে আসতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। হাইজিন শীল্ড প্রযুক্তি ব্যবহার করা নতুন এই পণ্যগুলো ভোক্তাসাধারণের বাড়িঘর জীবাণুমুক্ত ও তাদেরকে রোগ থেকে সুরক্ষিত রাখতে সর্বোচ্চ সহায়তা করবে।’

বিশ্বের ৩১টি দেশজুড়ে বেকোর পরিচালিত এক গবেষণায় দেখা গেছে যে এই সময় ক্রেতাদের প্রাথমিক উদ্বেগের কারণ হলো স্বাস্থ্যবিধি সঠিকভাবে মেনে চলার বিষয়টি । মানুষের বাসায় কাপড় পরিষ্কার করার প্রবণতা আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে, কিছু মানুষ প্রথমবারের মতো বিছানাপত্র জীবাণুমুক্ত করেছেন। ৭৫ শতাংশ মানুষ প্রায়ই ঘর পরিষ্কার করেন, ৬৪ শতাংশ মানুষ আগের চেয়ে বেশি কাপড় পরিষ্কার করেন এবং ৬৮ শতাংশ মানুষ তাদের ক্রয়কৃত পণ্যের মোড়ক পরিষ্কারের ক্ষেত্রে বেশ মনোযোগী।

 

সানবিডি/নাজমুল/০৪:১৪/১৭.১০.২০২০

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ