৫ রাজাকারের বিরুদ্ধে পুনরায় অভিযোগ গঠনের শুনানি কাল

আপডেট: ২০১৫-০৯-২১ ১৬:০৪:৩২


2015_09_07_11_26_58_tnT0EzqafW76gRndcuplH4bWHZDNnI_originalএকাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জের পাঁচ রাজাকারের বিরুদ্ধে পুনরায় অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য আগামীকাল মঙ্গলবার দিন নির্ধারণ করেছেন ট্রাইব্যুনাল।

সোমবার নবগঠিত ট্রাইব্যুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি মোহাম্মাদ আনোয়ার উল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল অভিযোগ শুনানির এ দিন ধার্য করেন।

আইন অনুসারে, নবগঠিত ট্রাইব্যুনাল-১ এর বেঞ্চ বিচারপতিরা আসামিদের অভিযোগ গঠনের শুনানি সম্পর্কে অবহিত নন। তাই তাদের অবগতির জন্যই অভিযোগগুলোর পুনরায় শুনানির জন্য দিন নির্ধারণ করা হয়।

এসময় ট্রাইব্যুনালে উপস্থিত ছিলেন প্রসিকিউটর সুলতান মাহমুদ সীমন, প্রসিকিউটর তাপস কান্তি বল এবং প্রসিকিউটর সুলতানা রেজিয়া।

অপরদিকে আসামিপক্ষে উপস্থিত ছিলেন শামসুদ্দিনের আইনজীবী মোহাম্মদ আতিকুর রহমান ও পলাতক চার রাজাকারের পক্ষে রাষ্ট্র নিযুক্ত আইনজীবী আব্দুস শুকুর খান।

গ্রেপ্তার হওয়া আসামি অ্যাডভোকেট শামসুদ্দিন আহমেদ ট্রাইব্যুনালের ডকে উপস্থিত ছিলেন।

এ মামলায় পলাতক বাকি চার আসামি হলেন, শামসুদ্দিনের সহোদর সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন মো. নাসিরউদ্দিন আহমেদ, গাজী আব্দুল মান্নান, হাফিজ উদ্দিন ও আজহারুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ১৩ মে পাঁচ রাজাকারের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ (ফরমাল চার্জ) আমলে নেয় ট্রাইব্যুনাল।

আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা, গণহত্যা, আটক, লুণ্ঠন, নির্যাতনসহ সাতটি মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ আনা হয়। আসামিরা কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ থানার বিদ্যানগর, আয়লা, ফতেরগুপ বিল, পুরাতন বিল ও আশেপাশের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে এসব মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটিত করে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। তাদের বিষয়ে প্রসিকিউশনের পক্ষে ৪০ জনকে সাক্ষি করা হয়েছে।

Print Print