Main Menu

প্রিয়তির আইরিশ চলচ্চিত্রের শুটিং বাংলাদেশে

pryotiমিস আয়ারল্যান্ড মাকসুদা আক্তার প্রিয়তি। পরিচালক কিয়ারন ডেভিস প্রিয়তিকে নিয়ে প্রথম নির্মাণ করেন ওয়ান্ডারল্যান্ড শিরোনামের চলচ্চিত্র। প্রিয়তি অভিনীত দ্বিতীয় আইরিশ চলচ্চিত্র কোকোলান। এ সিনেমাটিও নির্মাণ করছেন কিয়ারন।

ইতোমধ্যে সিনেমাটির সিংহ ভাগ শুটিং শেষ করেছেন নির্মাতা।  তবে শুটিং শেষ হতে আরো ৫/৬ মাস সময় লেগে যাবে। বাকি শুটিংয়ের কিছু দৃশ্যায়ন বাংলাদেশেও হবে বলে রাইজিংবিডিকে জানিয়েছেন প্রিয়তি।

এ প্রসঙ্গে আয়ারল্যান্ডে থেকে রাইজিংবিডিকে প্রিয়তি বলেন, ‘আমি সিনেমার গল্পের শেষ পর্যন্ত আছি। তাই আমার অংশের শুটিং এখনো বাকি রয়েছে। আরো ৫/৬ মাস সময় লেগে যাবে। চলতি মাসে মরক্কোতে শুটিং করব। এছাড়া ফ্রান্স, দুবাই, ভারত ও বাংলাদেশে সিনেমাটির শুটিং হবে। আসলে সিনেমাটির শুটিং শুধু আয়ারল্যান্ডে হচ্ছে না। বিভিন্ন দেশে এর দৃশ্যায়নের কাজ হচ্ছে।’

বাংলাদেশে কবে নাগাদ শুটিং করবেন এ প্রসঙ্গে প্রিয়তি বলেন, ‘এখনো তারিখ ঠিক হয়নি। আর শুটিংয়ের লোকেশনও ঠিক বলা যাচ্ছে না। কারণ অন্যান্য অভিনয়শিল্পীদের শিডিউলের উপর নির্ভর করছে। বাংলাদেশে এসে এটা চূড়ান্ত করব। এজন্য বাংলাদেশের অংশের শুটিং সবার পর হবে।’

আইরিশের সুপারহিরো কোকোলান এর জীবনী নিয়ে নির্মিত হচ্ছে এ চলচ্চিত্রটি। এতে যোদ্ধারাণীর চরিত্রে অভিনয় করছেন প্রিয়তি।  যা রূপায়ন করা তার জন্য খুবই চ্যলেঞ্জিং। এজন্য তলোয়ার চালনা, ছুরি চালনা, তীর চালনা শিখেছেন তিনি।  প্রিয়তির চরিত্রটি নেতিবাচক হলেও সিনেমার গল্পে খুবই গুরত্বপূর্ণ। এতে তার বিপরীতে কোকোলান এর চরিত্রে অভিনয় করছেন পরিচালক নিজেই।  সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে ২০১৭ সালে সিনেমাটি মুক্তি পাবে বলেও জানিয়েছেন প্রিয়তি।

বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় জন্মগ্রহণ করেন প্রিয়তি। শৈশব কেটেছে ঢাকাতেই। কৈশোরে তিনি পাড়ি জমান আয়ারল্যান্ডে। ইতোমধ্যে বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত প্রিয়তি মিজ আয়ারল্যান্ড ২০১৪ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীর মুকুট মাথায় তুলেছেন। শুধু তাই নয় মিজ আর্থ ২০১৬ প্রতিযোগিতার প্রথম রানারআপও হয়েছেন।



(পরের সংবাদ) »



মতামত দিন

Your email address will not be published. Required fields are marked as *

*