ঢাকা, , মঙ্গলবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৮

কাভার্ডভ্যান কেড়ে নিল আরেক মীমের প্রাণ

নিজস্ব প্রতিবেদক || প্রকাশ: ২০১৮-০৮-০৪ ১৮:৫৯:৪২ || আপডেট: ২০১৮-০৮-০৪ ১৮:৫৯:৪২

বিমানবন্দর সড়কে জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় নিরাপদ সড়ক দাবিতে আন্দোলনের মধ্যে গাজীপুরে কাভার্ডভ্যানের চাপায় এক কলেজছাত্রী নিহত হয়েছেন। শনিবার দুপুর পৌনে দুইটার দিকে ঢাকা-ময়মন‌সিংহ মহাসড়কের গাজীপুর বড়বাড়ি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহতের নাম ফারজানা আক্তার মীম (২০)। তিনি গাজীপুর বড়বাড়ি এলাকার ফারুক হোসেনের মেয়ে এবং সরকারি সফিউদ্দিন একাডেমি স্কুল অ্যান্ড কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী।
এরআগে গত ২৯ জুলাই দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জাবালে নূর পরিবহনের একটি বেপরোয়া বাস বিমানবন্দর সড়কের জিল্লুর রহমান ফ্লাইওভারের গোড়ায় দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের চাপা দেয়।
এতে শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির আবদুল করিম এবং একাদশ শ্রেণির দিয়া খানম মিম নিহত হন। এ ঘটনায় মিমের বাবা জাহাঙ্গীর ফকির রোববার রাতে ক্যান্টনমেন্ট থানায় মামলা করেন। বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে হত্যার অভিযোগ আনা হয় ওই মামলায়।
ওই ঘটনায় নিরাপদ সড়ক দাবিতে সারাদেশে চলমান আন্দোলনের মধ্যেই শনিবার এই দুর্ঘটনা ঘটল।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বড়বাড়ি এলাকায় রাস্তা পার হওয়ার সময় এক‌টি কাভার্ডভ্যান মীমকে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি চাকার নিচে পড়ে যান। এরপর কাভার্ডভ্যানটি তার মাথার ওপর দিয়ে চলে যায়।
পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে মীমকে টঙ্গী হাসপাতা‌লে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
টঙ্গী হাসপাতা‌লের ডিউটি ডাক্তার ম‌নিরা আক্তার জানান, মীমকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছিল। পরে লাশটি মর্গে রাখা হয়েছে।
এ ঘটনায় বিক্ষুদ্ধরা কাভার্ডভ্যান‌টি আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে। সড়কে অবস্থান নিয়ে বেশ কিছুক্ষণ তারা বিক্ষোভও করেন। তবে কাভার্ডভ্যানটির চালক পালিয়ে গেছেন।

আর্কাইভ