ঢাকা, , শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮

মুমিনুলের রেকর্ডের ম্যাচে বাংলাদেশের জয়

ডেস্ক || প্রকাশ: ২০১৮-০৮-০৯ ১১:১৯:৫০ || আপডেট: ২০১৮-০৮-০৯ ১১:১৯:৫০

এক ম্যাচে কত কত রেকর্ড! সবগুলোই মুমিনুল হকের উইলোর ছোঁয়ায়। বাংলাদেশ দলের এই লিটল জিনিয়াস ডাবলিনে রীতিমত বিস্ময় ছড়িয়েছেন। তার ১৮২ রানের রেকর্ডময় এক ইনিংসে ভর করে সিরিজের চতুর্থ অনানুষ্ঠানিক ম্যাচে আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলকে ৮৫ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। এই জয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে টাইগাররা। সিরিজে একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়।
টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং নিয়েছিল বাংলাদেশ ‘এ’ দল। শুরুতেই উইকেট হারিয়ে বসে সফরকারিরা। ৬ রানের মাথায় ফিরে যান ওপেনার মিজানুর রহমান। পরের সময়টা শুধুই মুমিনুলের। দ্বিতীয় উইকেটে জাকির হাসানকে নিয়ে ২১০ রানের জুটি গড়েন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। ৯৩ বলে ৭৯ করে ফিরেন জাকির।
এরপর মোহাম্মদ মিঠুনকে নিয়ে ১১২ রানের আরেকটি জুটি। ১৩৩ বলে ২৭ চার আর ৩ ছক্কায় ১৮২ রানের অবিশ্বাস্য এক ইনিংস খেলে মুমিনুল সাজঘরে ফিরলে ভাঙে এই জুটিটি। যে ইনিংসের পথে কয়েকটি রেকর্ড গড়ে ফেলেন লিটল জিনিয়াস।
মুমিনুলের ১৮২ রানের ইনিংসটি ছিল বিদেশের মাটিতে লিস্ট ‘এ’ ম্যাচে কোনো বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানের সর্বোচ্চ। এর আগে, ২০০৯ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১৫৪ রান করেছিলেন তামিম ইকবাল।
শুধু তাই নয়, মহাকাব্যিক এই ইনিংসের বাউন্ডারির রেকর্ডও গড়েছেন মুমিনুল। বাংলাদেশি কোনো ব্যাটসম্যানের ৫০ ওভারের ক্রিকেটে এক ইনিংসে সর্বোচ্চ চারের রেকর্ডটি এতদিন দখলে ছিল তামিমেরই বড় ভাই নাফিস ইকবালের। ২০১৩ সালে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) ২১টি বাউন্ডারির রেকর্ড গড়েছিলেন নাফিস। মুমিনুল এবার চার মেরেছেন ২৭টি।
তিনি ফেরার পর বাকি কাজটা সেরেছেন মোহাম্মদ মিঠুন। ৫১ বলে ১৪ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় হার না মানা ৮৭ রানের ইনিংস খেলেন এই ব্যাটসম্যান। সবমিলিয়ে বাংলাদেশ দাঁড় করায় ৪ উইকেটে ৩৮৬ রানের পাহাড়সম এক সংগ্রহ। যেটি আবার বাংলাদেশের লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেটে দলীয় সর্বোচ্চ ইনিংসের রেকর্ড।
৩৮৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে অ্যান্ডি বালবিরিন দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরি হাঁকালেও জয় পাওয়া হয়নি আইরিশদের। ৪৬.১ ওভারে তারা অলআউট হয় ৩০১ রানে।
বাংলাদেশের পক্ষে ৩টি করে উইকেট নেন খালিদ আহমেদ আর ফজলে মাহমুদ। ২টি করে উইকেট শরিফুল ইসলাম এবং মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের।