ঢাকা, , বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮

১৯ পণ্যে পাটের বস্তার ব্যবহার বাধ্যতামূলক

নিজস্ব প্রতিবেদক || প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১২ ১৯:০৮:১৬ || আপডেট: ২০১৮-০৮-১২ ১৯:০৮:১৬

মুরগি ও মাছের খাবার সংরক্ষণ ও পরিবহনে পাটের বস্তার ব্যবহার বাধ্যতামূলক করেছে সরকার। ‘পোল্ট্রি’ ও ‘ফিস ফিড’সহ মোট ১৯টি পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহারের জন্য নির্ধারিত করা হয়েছে। বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য দেওয়া হয়।

‘পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন, ২০১০-এর ধারা ২২ এ প্রদত্ত ক্ষমতাবলে সরকার পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার বিধিমালা, ২০১৩-এর অধিকতর সংশোধন করে ‘পোল্ট্রি’ ও ‘ফিস ফিড’ সংরক্ষণ ও পরিবহনে পাটের বস্তার ব্যবহার বাধ্যতামুলক করা হয়। আইন অনুযায়ী ছয়টি পণ্য- ধান, চাল, গম, ভূট্টা, সার ও চিনি পাটজাত মোড়কে পাটের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়। পরে ২০১৭ সালের ২১ জানুয়ারি মরিচ, হলুদ, পেঁয়াজ, আদা, রসুন, ডাল, ধনিয়া, আলু, আটা, ময়দা, তুষ-খুদ-কুড়াসহ মোট ১৭টি পণ্যে পাটজাত মোড়কের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়।

ওই আইন অনুযায়ী পাটের মোড়ক ব্যবহার না করলে অনূর্ধ্ব এক বছর কারাদণ্ড বা অনধিক ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা হবে। এ অপরাধ দ্বিতীয়বার কেউ করলে সর্বোচ্চ দণ্ডের দ্বিগুণ দণ্ডে দণ্ডিত করা হবে ।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আইনটি বাস্তবায়িত হলে প্রতিবছর ১০০ কোটিরও বেশি পাটের বস্তার চাহিদা সৃষ্টি হবে । স্থানীয় বাজারে পাট ও পাটজাত পণ্যের চাহিদা বৃদ্ধি পাবে, পাট চাষিদের পাটের ন্যায্য মূল্য প্রাপ্তি নিশ্চিত হবে এবং সর্বোপরি পাটের উৎপাদন বৃদ্ধিসহ পাটের শিল্প ও পরিবেশ রক্ষা পাবে।

আর্কাইভ