ঢাকা, , সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

সুসংবাদ জানাবে গুগল!

সান বিডি ডেস্ক || প্রকাশ: ২০১৮-০৮-৩০ ১৩:৩৭:৪৩ || আপডেট: ২০১৮-০৮-৩০ ১৩:৩৭:৪৩

খবরের কাগজ হোক বা ওয়েব মিডিয়া, বেতার হোক বা টেলিভিশন- সবখানেই খুন, ধর্ষণ, দুর্ঘটনা ও রাজনৈতিক দলাদলির ঘটনা দিয়েই আজকাল শুরু হয় দিন।
এর পর দিনভর চলতে থাকে সেসব খবরের চুলচেরা বিশ্লেষণ; নয়তো তা নিয়ে ব্যাখ্যা ও চর্চা। এবার সে অভ্যাস বদলে দিতে নতুন পরিকল্পনা নিয়েছে গুগল।
সকাল-সকাল গুগল হোম অ্যাসিস্ট্যান্ট ও গুগল হোম মিনিতে এক নয়া প্রকল্প শুরু করেছে গুগল।
বিশ্বের বৃহত্তম এ সার্চ ইঞ্জিন এবার শুধুই ‘সুখবর’ শোনাবে গ্রাহককে। গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট অন করে বলতে হবে ‘Hey Google, tell me something good.’ ব্যস এই টুকুই।
এর পর সারা দুনিয়ার বাছাই করা সব মন ভালো করা খবর আপনার সামনে এসে হাজির করবে গুগলের নেটওয়ার্ক সাংবাদিকরা।
এর জন্য একটি বিশেষ খবরের সংস্থাও তৈরি করেছে গুগল। এ সংস্থাটির কাজই হবে গোটা বিশ্বের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম থেকে ভালো ভালো খবরগুলো বাছাই করা। সেই বাছাই করা খবরগুলোই দেখানো হবে আপনাকে। আপাতত এ পরিষেবা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে শুরু হলেও ধীরে ধীরে এটি গোটা বিশ্বেই ছড়িয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করছে গুগল। কোনো কোনো সংস্থার মোবাইলেও এই পরিষেবা চালু করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে গুগল।
সম্প্রতি নিজেদের ব্লগে এ প্রয়াসের কথা জানিয়েছে তারা। গুগলের মতে, মানুষকে কিছু ভালো খবর যেমন জানানো যাবে, তেমন খারাপ খবর পেতে পেতে তাদের ক্লান্তি ও হতাশাকেও কাটাতে সাহায্য করবে বাছাই করা সংবাদগুলো।
গবেষক ও মনোবিদরা বরাবরই দাবি করে এসেছিলেন, গতানুগতিক খবরের মধ্যে বাস করতে করতে মানুষের মানসিক স্বাস্থ্যের অবনতি হচ্ছে। মনে মনে অস্থির ও হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়ছেন মানুষ। ছড়াচ্ছেন হিংসার বীজও।
ভালো খবর সবসময়ই মানুষের মনস্তত্বে ছাপ ফেলে। মনকে ফুরফুরে করে। অনেক সময় অনেক রোগীর চিকিৎসার ক্ষেত্রেও আমরা ভালো ভালো খবর তাকে ভালেঅ হতে সাহায্য করে। এতে জীবনের প্রতি একটি ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি তৈরি হয়।