ঢাকা, , সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

ইবির ছাত্রী হলে পানির জন্য আন্দোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক || প্রকাশ: ২০১৮-০৯-১৯ ১০:৪২:৩৩ || আপডেট: ২০১৮-০৯-১৯ ১০:৪২:৩৩

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলে মধ্যরাতে পানির জন্য আন্দোলন করেছেন ছাত্রীরা। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত টানা দুই ঘণ্টা পানির জন্য হল গেটে অবস্থান করেন তারা। পরে হলের প্রধ্যাক্ষ অধ্যাপক মিজানুর রহমান ঘটনাস্থলে এসে পানি সমস্যার স্থায়ী সমাধানের আশ্বাস দিলে ছাত্রীরা রুমে ফিরে যায়।
ছাত্রীদের ভাষ্যমতে, গত এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলে ব্যবহার্য পানির সমস্যা চলছে। বারবার হল প্রশাসনকে অবহিত করার পরও কোনো সমাধান করেনি তারা। মঙ্গলবার এ সমস্যা প্রকট হলে বাধ্য হয়ে আন্দোলনে নামেন ছাত্রীরা। এসময় তারা বালতি, কলস, জগ নিয়ে পানির দাবিতে বিভিন্ন স্রোগান দিতে থাকেন।
ছাত্রীদের আন্দোলনের খবর শুনেই ঘটনাস্থলে ছুটে যান বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর নাসিমুজ্জামান ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিম। তারা ছাত্রীদের আশ্বস্ত করে নিবৃত্ত করার চেষ্টা করেন। পরে হল প্রাধ্যক্ষ ঘটনাস্থলে এসে ছাত্রীদের আশ্বস্ত করলে তারা আন্দোলন স্থগিত করেন।
হলের আবাসিক শিক্ষার্থী শারমিন সুলতানা এবং ফারহানা ইয়াসমিন জাগো নিউজকে বলেন,‘এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে হলে মাঝে মাঝে পানি আসে। গোসলসহ অন্যান্য নিত্যনৈমত্তিক কাজ বন্ধ হয়ে যায়। ট্যাপে পানির সাথে প্রচুর মরিচা আসে এবং লালপানি বের হয়। যা ব্যবহার অনুপযোগী। এ জন্যই বাধ্য হয়ে আন্দোলনে এসছি।’
হলের আরেক আবাসিক ছাত্রী নাসরিন বলেন,‘আগামিকাল কোর্স ফাইনাল পরীক্ষা। পানির জন্য গোসলও করতে পারিনি। প্রচণ্ড গরমে গোসল না করতে পরে মাথা ব্যথা করছে।’
হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন,‘ছাত্রীদের অভিযোগ আমলে নিয়ে কয়েকদিন থেকেই সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছি কিন্তু প্রকৌশল অফিসের যথাযথ সাহাহ্য পাইনি। পাইপলাইনে সমস্যার কারণে সাময়িক স্থবিরতা দেখা দিয়েছে। শুক্রবারের মধ্যে সমস্যা সমাধান করা হবে।’