ঢাকা, , সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

কোনো দলের সঙ্গে ‘বসার সময় নেই’ নির্বাচন কমিশনের

জেলা প্রতিনিধি || প্রকাশ: ২০১৮-০৯-২৭ ১৯:৫১:৩৩ || আপডেট: ২০১৮-০৯-২৭ ১৯:৫১:৩৩

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অবাধ, গ্রহণযোগ্য ও সব দলের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা। তবে নির্বাচনে কোনো রাজনৈতিক দল যদি না আসে তাহলে তাদের সঙ্গে বসার কোনো সময়-সুযোগ ইসির নেই বলে জানিয়েছেন নির্বাচন পরিচালনায় নিয়োজিত সাংবিধানিক এ সংস্থাটির প্রধান।

বৃহস্পতিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বগুড়া জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে জেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সিইসি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘যে সব রাজনৈতিক দল নির্বাচন কমিশনের প্রতি অনাস্থা প্রকাশ করে আমি বলব তাদের রাজনৈতিক স্বাধীনতা আছে। এটা তাদের ব্যাপার। তবে আমাদের সক্ষমতা নিয়ে আমরা কোনো সন্দিহান নই। আমরা সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের বিষয়ে প্রস্তুত আছি।’

‘কোনো দল নির্বাচনে না এলে তার রেজিস্ট্রেশন বাতিল হওয়ার ঝুঁকি তো থাকবেই’ বলেন সিইসি।

কে এম নুরুল হুদা বলেন, ‘ডিসেম্বরের মধ্যে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে কাজ করছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর সেনা মোতায়েন হবে কি  হবে না সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে কমিশন।’

একাদশ সংসদ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহারের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘সব রাজনৈতিক দল ও জনগণ চাইলে নির্বাচনে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হবে তবে তা সীমিত পরিসরে। প্রযুক্তির সঙ্গে এগিয়ে যাওয়ার জন্য আমরা নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করতে চাই, তবে এ ক্ষেত্রে আইনের পরিবর্তনের দরকার। সেই আইন পরিবর্তনের জন্য আমরা আইন মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।’

বগুড়া জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বগুড়ার জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ নূরে আলম সিদ্দিকী, বগুড়ার পুলিশ সুপার মো. আশরাফ আলী ভূঞা, আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসার রাজশাহী সৈয়দ আমিরুল ইসলাম, র‌্যাব-১২ বগুড়া কমান্ডার মেজর এসএম মোর্শেদসহ জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনসহ জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নির্বাচন কর্মকর্তারা।