ঢাকা, , মঙ্গলবার, ২২ জানুয়ারী ২০১৯

গ্যাবনে সামরিক অভ্যুত্থানের ব্যর্থ প্রচেষ্টা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || প্রকাশ: ২০১৯-০১-০৮ ১৪:৫৫:১৫ || আপডেট: ২০১৯-০১-০৮ ১৪:৫৭:০৮

আফ্রিকার তেলসমৃদ্ধ দেশ গ্যাবনের সেনাবাহিনীর একটি পক্ষ আলী বোঙ্গো পরিবারের ৫০ বছরের ক্ষমতার অবসান ঘটাতে সামরিক অভ্যুত্থানের প্রচেষ্টা চালালে তা ব্যর্থ হয়।

দেশটির পক্ষাঘাতগ্রস্ত প্রেসিডেন্ট আলী বোঙ্গো বিদেশে চিকিৎসাধীন রয়েছে তার অনুপস্থিতির সুযোগে গতকাল সোমবার সেনাদের গ্রুপটি রাষ্ট্রীয় রেডিও দখল করে ক্ষমতাগ্রহণের কথা প্রচার করে।

এর কয়েক ঘণ্টা পরই সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বিদ্রোহীদের চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে এবং পাঁচ সেনা কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গতকাল ৭ জানুয়ারী স্থানীয় সময় ভোর সাড়ে ৪টায় পাঁচজন সেনা রাষ্ট্রীয় রেডিও স্টেশনে হঠাৎ ঢুকে পড়ে। তারা ‘জাতীয় পুনরুদ্ধার কাউন্সিলের’ ঘোষণা দিয়ে দেশের সব সেনাকে পরিবহনব্যবস্থা, গোলাবারুদ ও বিমানবন্দরের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার আহ্বান জানায়।

পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই বার্তা প্রচারের একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়। তাতে দেখা যায়, তিনজন তরুণ সেনা সামরিক উর্দি পরে রাইফেল উঁচিয়ে ধরে রাখে। এ সময় লেফটেন্যান্ট কেলি অন্ডো ওবিয়াং নিজেদের গ্যাবনের প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা বাহিনীর দেশপ্রেমিক আন্দোলনের প্রতিনিধি পরিচিয় দেন। তিনি তরুণ প্রজন্মকে চূড়ান্ত গন্তব্যের দায়িত্ব নিতে বলেন।
ওই সেনা কর্মকর্তা নিজেকে রিপাবলিকান গার্ড বাহিনীর ডেপুটি কমান্ডার দাবি করে বলতে থাকেন, ‘আমরা আমাদের মাতৃভূমিকে পরিত্যক্ত হতে দিতে পারি না। বহুল প্রত্যাশার দিন আজ সমাগত। সেনাবাহিনী সিদ্ধান্ত নিয়েছে, বিশৃঙ্খলা থেকে গ্যাবনকে রক্ষা করতে জনগণের পাশে দাঁড়াবে।’ নাগরিকদের উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘আপনারা যদি খাওয়াদাওয়ায় থাকেন তা বন্ধ করুন। আপনারা যদি পানে ব্যস্ত থাকেন তা বন্ধ করুন। আপনারা যদি ঘুমে থাকেন জেগে উঠুন। আপনাদের প্রতিবেশীকে জাগিয়ে তুলুন। আপনারা জেগে উঠুন, রাস্তার নিয়ন্ত্রণ নিন।’

এর কয়েক ঘণ্টা পরই সরকারের মুখপাত্র গাই বারট্রান্ড মাপাংগো এক বিবৃতিতে জানান, ‘শান্তি ফিরে এসেছে। পরিস্থিত নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। রেডি অফিসেও ঢোকা চার সেনাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একজন পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’পরে পৃথক বিবৃতিতে তিনি জানান, পলাতক সেনাকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
তাঁর ঘোষণার পরপরই রাজধানী লিবারভিলজুড়ে এলিট বাহিনী রিপালিকান গার্ডের সদস্য মোতায়েন করা হয়। লোকজনকে স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে দেখা যায়।

আটলান্টিক মহাসাগরের তীরবর্তী মধ্য ও পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গ্যাবন একটি তেলসমৃদ্ধ দেশ। এর জিডিপি ৬ শতাংশের ওপরে। কিন্তু ব্যাপক বৈষম্যের কারণে দেশটির ২০ লাখ মানুষের অধিকাংশই চরম দরিদ্র। দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট ৫৫ বছর বয়স্ক আলী বোঙ্গো দুই মাস আগে স্ট্রোক করলে চিকিৎসার জন্য প্রথমে সৌদি আরব যান। বর্তমানে মরক্কোতে তাঁর চিকিৎসা চলছে। তিনি ২০০৯ সালে বাবা ওমর বোঙ্গোর কাছ থেকে ক্ষমতা পান। ২০১৬ সালে নতুন নির্বাচন হয়। নির্বাচনে ব্যাপক সহিংসতা ও কারচুপির অভিযোগ রয়েছে। গ্যাবনের সেনাবাহিনীকে সব সময় বোঙ্গো পরিবারের অনুগতই ধরা হয়।

গ্যাবনে বিবিসির সাংবাদিক ফিরমেইন এরিক মবাডিঙ্গা বলেন, সামরিক অভ্যুত্থানের চেষ্টা একটি বিরাট বিস্ময়কর ঘটনা। কারণ দেশটিতে সেনাবাহিনীকে দেখা হয় বোঙ্গো পরিবারের প্রতি খুবই আনুগত্যপূর্ণ হিসেবে। কারণ সামরিক বাহিনী, বিশেষ করে রিপাবলিকান গার্ডের অধিকাংশ সদস্যই এসেছে বোঙ্গোর নিজ এলাকা থেকে।