রয়েল টিউলিপের আইপিও লটারির ড্র চলছে

পুঁজিবাজার ডেস্ক || প্রকাশ: ২০১৯-০৫-২৩ ১১:৩৯:২৫ || আপডেট: ২০১৯-০৫-২৩ ১১:৩৯:২৫

বিনিয়োগকারীদের মধ্যে শেয়ার বরাদ্দ দিতে হোটেল সী পার্ল বীচ রিসোর্ট অ্যান্ড স্পা লিমিটেডের প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) আইপিও ড্র চলছে।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০ টায়, এজিবি কলোনী, মতিঝিল, ঢাকায় এ লটারির ড্র’র উদ্বোধন করেন কোম্পানির চেয়ারম্যান।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত রয়েছেন, কোম্পানিটির ব্যাবস্থাপনা পরিচালক মো আমিনুল হক, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ব্রি. জে. মকবুল হোসাইন, প্রধান অর্থ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান, কোম্পানি সচিব আজহারুল ইসলাম এবং ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের পরিচালক বদরুল ইসলাম প্রমুখ। এছাড়াও উপস্থিত রয়েছেন, ইস্যু ম্যানেজার, সিডিবিএল প্রতিনিধি ও বুয়েটের কর্মকর্তারা।

কোম্পানি সূত্রে জানা গেছে, সী পার্লের আইপিওতে মোট ৭৪৫ কোটি টাকার আবেদন জমা পড়েছে। ১৫ কোটি টাকার আইপিও’র বিপরীতে যা ৪৯.৬৬ গুণ বেশি। আর ৯৬ গুণ আবেদন জমা পড়েছে আইপিওর জেনারেল কোটায়।

গত ২৩ এপ্রিল থেকে ৬ মে পর্যন্ত এ কোম্পানির আইপিওতে সকল প্রকার বিনিয়োগকারীরা উল্লিখিত পরিমান আবেদন করছেন। এর আগে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৬৭৬তম কমিশন সভায় কোম্পানিটির আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়।

প্রাপ্ত তথ্য মতে, সী পার্ল পুঁজিবাজারে ১ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার ইস্যুর মাধ্যমে ১৫ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। এ জন্য প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা। আর উত্তোলনযোগ্য ১৫ কোটি টাকার মধ্যে ১০ কোটি ৬৮ লাখ ২৭ হাজার ৩০০ টাকা দিয়ে হোটেলের ১৫৭টি রুমের আসবাবপত্র ক্রয় ও ফিনিশিংয়ের কাজে ব্যবহার করা হবে। এছাড়া ২ কোটি ৬৬ লাখ ৬০ হাজার টাকা দিয়ে জমি ক্রয় ও ১ কোটি ৬৫ লাখ ১২ হাজার ৭০০ টাকা দিয়ে আইপিও ব্যয় নির্বাহ করা হবে।

প্রাপ্ত তথ্য মতে, সী পার্লের ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ৪ কোটি ৬১ লাখ টাকার নিট মুনাফা হয়েছে। যা শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হিসাবে হয়েছে ০.৬৭ টাকা। কোম্পানিটিতে ২০১৮ সালের ৩০ জুন নিট শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১০.৪৮ টাকা।

আইপিওতে কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে বানকো ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট ও প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালের ২৬ মে প্রাইভেট কোম্পানি হিসাবে গঠিত হয় পাঁচ তারকা মানের রয়েল টিউলিপ ফ্রাঞ্চাইজ সী পার্ল। কক্সবাজারে অবস্থিত হোটেলটির বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু হয় ২০১৫ সালের ১৭ সেপ্টেম্বর। এরপরে ২০১৭ সালের ১৪ নভেম্বর প্রাইভেট কোম্পানি থেকে পাবলিক কোম্পানিতে রূপান্তর হয়।

সান বিডি/এসকেএস