ধান-চাল সংগ্রহের সরকারি লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়নি

সান বিডি ডেস্ক || প্রকাশ: ২০১৯-০৯-০৭ ১১:১০:১৯ || আপডেট: ২০১৯-০৯-০৭ ১১:১০:১৯

এ বছর বোরা ধানের দাম না পেয়ে দিশাহারা ছিল কৃষক, এরপরও পূরণ হয়নি সরকারের ধান সংগ্রহ লক্ষ্যমাত্রা। শুধু ধানই নয়, সিদ্ধ চাল সংগ্রহেরও ঘাটতি রয়ে গেছে। আর এর মধ্যেই সংগ্রহের নির্ধারিত সময়ও পেরিয়ে গেছে।

অবশেষে নতুন করে আরো ১৫ দিন (১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত) ধান-চাল সংগ্রহ কার্যক্রম চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে খাদ্য অধিদপ্তর।

এ বছর বোরো মৌসুমে প্রান্তিক কৃষকের কাছে চার লাখ টন ধান সংগ্রহের কথা ছিল। আর এ জন্য সময় নির্ধারিত ছিল ৩১ আগস্ট পর্যন্ত। কিন্তু ওই সময়ে ধান সংগ্রহ হয়েছে তিন লাখ ৭১ হাজার টন। অন্যদিকে ১০ লাখ টন সিদ্ধ চালের সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও এ পর্যন্ত সংগ্রহের পরিমাণ ৯ লাখ ৪৯ হাজার টন। অর্থাৎ লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে হলে এখনো ২৯ হাজার টন ধান ও ৫১ হাজার টন চাল সংগ্রহ করতে হবে সরকারকে।

এ বিষয়ে অধিদপ্তরের সংগ্রহ বিভাগের পরিচালক জুলফিকার রহমান বলেন, অল্প কিছু ধান-চাল সংগ্রহ বাকি রয়ে গেছে। এ কারণে সময় বাড়িয়ে সংগ্রহ কার্যক্রম চালু রাখা হয়েছে। তিনি জানান, লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে আগামী ১৫ তারিখ পর্যন্ত ধান সংগ্রহ চলবে। এছাড়া গত ১ সেপ্টেম্বর থেকে চাল সংগ্রহ বন্ধ করা হলেও তা আগামী ৮ তারিখ থেকে আবার চালু করা হবে। চলবে আগামী ১৫ তারিখ পর্যন্ত।

এ বছর বোরো মৌসুমে বাম্পার ফলন হওয়ার পরে সারা দেশে কমে যায় ধানের দাম। দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিঘাপ্রতি ধানে দুই থেকে তিন হাজার টাকা লোকসান গুনতে হয় কৃষকদের। এমন পরিস্থিতিতে কৃষকদের ন্যায্যমূল্য এবং ধানের মূল্যবৃদ্ধি নিশ্চিত করতে ধান সংগ্রহ লক্ষ্যমাত্রা বৃদ্ধির পাশাপাশি ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে সরকার ১০ থেকে ১৫ লাখ টন চাল রপ্তানির সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সরকার। তবে কোনো কার্যক্রমই পুরোপুরি সফলতার মুখ দেখেনি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ