গন্ধ ছেড়ে স্মৃতিতেই ভরসা সারমেয়কুলের

আপডেট: ২০১৫-০৯-২১ ১৮:৫২:৫৮


 DOG-655x360যে কোনও অপরাধ ধরতে ডাক পড়ে তাদের৷ বলা হয়, গন্ধ শুঁকে শুঁকে ঠিক অপরাধীকে খুঁজে দিতে পারে তারা৷  গন্ধ শুঁকেই অপরাধী ধরার মতো গুরুত্বপূর্ণ কাজ তারা করে বটে, তবে তারা ভরসা করে স্মৃতিশক্তিতেই৷ হ্যাঁ সারমেয়দের কথাই হচ্ছে৷ সাম্প্রতিক এক সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, সারমেয়রা গন্ধ নয়, বরং স্মৃতির উপর ভরসা করেই কাজ করে বেশি৷

কুকুরদের এই ক্ষমতা পরীক্ষা করতে সম্প্রতি এক মজার সমীক্ষার আয়োজন করা হয়েছিল৷ প্রায় ৫০০ কুকুরমালিক তাতে অংশগ্রহণ করেন৷ স্মৃতি নাকি গন্ধ, কেনাটার উপর কুকুররা ভরসা করে বেশি, তা জানতে যে খেলাটির আয়োজন করা হয়েছিল তা এরকম- পাশাপাশি দুটি কাপ জাতীয় পাত্রের একটিতে খাবার রাখা হয়েছিল৷ অন্যটি ফাঁকা৷ কুকুরদের প্রথমে খাবারটি খেতে দেওয়া পরে৷ পরে তাদের চোখের আড়ালে খাবার প্রথম পাত্রের জায়গায় দ্বিতীয়পাত্রে রাখা হয়৷ যদি গন্ধে ভরসা করেই কুকুররা কাজ করত, তাহলে তারা দ্বিতীয় পাত্রেই মুখ দিত৷কিন্তু অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা গেল, কুকুররা ফিরে এসে প্রথম পাত্রেই খাবারের খোঁজ করছে৷  এই সমীক্ষাই প্রমাণ দিচ্ছে, কুকুররা স্মতিশক্তির উপর ভরসা করেই কাজ করে বেশি৷

 

 ৫০০ কুকুর মালিকের মধ্যে সমীক্ষা হলেও, আরও বহু মানুষ কুকুরদের নিয়ে এই তথ্য দিয়েছেন৷ ডিউকের এক অধ্যাপক ‘ডগনিশন’ নামে একটি ওয়েবসাইট চালু করেছেন৷ সেখানেই বহু মানুষ এই তথ্য জানিয়ে কুকুরদের স্মৃতিশক্তির পক্ষেই সায় দিয়েছেন৷

Print Print