শরীয়তপুরের জাজিরায় স্কুল ছাত্রকে অপহরণের পর হত্যা,আটক -২

:: মোহাম্মদ জামাল মল্লিক,শরীয়তপুর।। || প্রকাশ: ২০২০-০৬-২৭ ২০:০৯:৫৮ || আপডেট: ২০২০-০৬-২৭ ২০:০৯:৫৮

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার নাওডোবা ইউনিয়নে মুক্তিপণের টাকা না পেয়ে শাকিল (১৫) নামের এক স্কুলছাত্রকে হত্যা করে মাটিতে পুতে রাখা হয়েছিলো । শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে পার্শবর্তী ইউনিয়ন পশ্চিম নাওডোবা থেকে শাকিলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

শাকিল পূর্ব নাওডোবা ইউনিয়নের হাজী কালাই মাদবর কান্দি গ্রামের সালাম মাদবরের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছেলে। গত ২৫ জুন বিকাল সাড়ে ৩ টার দিকে ক্রিকেট খেলার কথা বলে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় বাবু ।

ঘটনার প্রেক্ষিতে ২৬ জুন বিকালে জাজিরা থানা পুলিশ সাকিব ওরফে বাবুকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। সকলের উপস্থিতিতে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে আসামী সাকিব ওরফে বাবু স্বীকার করে বলেন, শাকিল মাদবরকে সে এবং আক্তার মাদবর, সজিব মাঝি, ইমরান মোড়ল, মহসিন হাওলাদার, স্বপন সরদার পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী পরস্পরের যোগসাজশে মুক্তিপণ আদায়ের উদ্দেশ্যে অপহরণ করে। পরে তারা শাকিলের বাবাকে ফোন করে ৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে সময় বেধে দেয়।

দরিদ্র বাবা টাকা জোগার করতে না পেরে পুলিশকে জানালে তারা শাকিলকে শ্বাসরোধ করে মেরে পার্শ্ববর্তী ইউনিয়নের একটি ফাঁকা স্থানে মাটিতে পুতে রাখে।
এ ঘটনায় জাজিরা থানায় ৬ জনকে আশামি করে শাকিলের বাবা বাদী হয়ে মামলা করলে মোবাইল ট্রেকিংএর মাধ্যমে ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করে জানান শরীয়তপুর জেলা পুলিশ। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার এসএম আশরাফুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আল মামুন শিকদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) তানভীর হায়দার শাওন, আজহারুল ইসলাম সরকার, পিপিএম, অফিসার ইনচার্জ, জাজিরা থানা, সাইফুল ইসলাম, ডিআইও-২, জেলা বিশেষ শাখা, শরীয়তপুরসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ