ঢাকা, , শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮

‘মানবিক মানুষ নয়,বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে কেরানি তৈরি হতে পারে,

নিজস্ব প্রতিবেদক || প্রকাশ: ২০১৮-০৭-২৭ ২৩:৪৯:৩৫ || আপডেট: ২০১৮-০৭-২৭ ২৩:৪৯:৩৫

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা পদ্ধতিতে বাজারের জন্য কেতাদুরস্ত কেরানি তৈরি হতে পারে কিন্তু মানবিক মানুষের সমাজ কখনো তৈরি হতে পারে না, বলে মন্তব্য করেছেন তেল-গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্যসচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ।

শুক্রবার (২৭ জুলাই) বিকেল ৩টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসু ভবনের দ্বিতীয় তলায় সমাজতান্ত্রিক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার ছাত্র ফ্রন্ট উদ্যোগে আয়োজিত ‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়: প্রতিশ্রুতি বনাম বাস্তবতা’ শীর্ষক মুক্ত সংলাপে তিনি এসব কথা বলেন।

শাসকগোষ্ঠীর শিক্ষার বাণিজ্যিকীকরণ নীতির কারণে দিন দিন সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে পার্থক্য কমে আসছে বলে মন্তব্য করে তিনি আরও বলেন, ‘ফলে বিচ্ছিন্নভাবে শুধু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমস্যাকে না দেখে পুরো শিক্ষাব্যবস্থার সমস্যার সাথে তাকে মিলিয়ে দেখতে হবে এবং তার বিরুদ্ধে লড়াই গড়ে তুলতে হবে।’

অনুষ্ঠানে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ ছাড়াও গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিদ্যা ও সমাজকর্ম বিভাগের সিনিয়র প্রভাষক শহীদ মল্লিক ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ার উপস্থিত ছিলেন।

প্রভাষক শহীদ মল্লিক বলেন, ‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে বাজারের চাহিদা আছে শুধু এমন বিষয়গুলোকেই প্রাধান্য দেওয়া হয়। মানবিক মানুষ গড়ে তোলার কোনো আয়োজন সেখানে নেই।’

‘শিক্ষার্থীদের প্রয়োজন ও শিক্ষকদের মতামতকে গুরুত্ব না দিয়ে নিজেদের ইচ্ছামতো বিশ্ববিদ্যালয়ের নানা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের সিদ্ধান্তগ্রহণ করে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ, বলেন শহীদ মল্লিক।

অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ার বলেন, ‘শিক্ষার কৃত্রিম সংকট তৈরি করে শাসকগোষ্ঠী আমাদের দেশে শিক্ষার বেসরকারিকরণকে বৈধতা দিতে ১০৩টি বিশ্ববিদ্যালয়কে অনুমোদন দিয়েছে, যার সংখ্যা সামনে আরও বাড়বে। শাসকগোষ্ঠীর শিক্ষানীতি এবং বিশ্ববিদ্যালয় মালিকদের শিক্ষানীতি একে অন্যের পরিপূরক, যার মূল উদ্দেশ্য বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীর শিক্ষার অধিকার হরণ করা। এর বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তোলা ছাড়া আর কোনো বিকল্প পথ নেই।’

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি অরূপ দাস শ্যাম।

এ ছাড়া বিভিন্ন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তাদের নিজ নিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের নানা অনিয়ম-দুর্নীতির করুণ চিত্র তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক অভিমিতা স্বর্ণা।

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১