তুলনামুলক কম দামে ভালো মেক-আপ সামগ্রী

প্রকাশ: ২০১৫-০৯-২১ ০৭:০৫:১০ আপডেট: ২০১৫-০৯-২১ ১৬:০৯:২০

Cosmetic

মেয়েদের কাছে মেক-আপ ভুবন সবচেয়ে প্রিয়। একজন মেক-আপ আর্টিস্টের কাছে মুখ হল ক্যানভাস, যেটা সে তুলির সাহায্যে সাজাতে পারে। মেয়েরা সবাই কম বেশি মেক-আপ পছন্দ করে। একটি মেয়ে প্রতিদিন সাজুক আর নাই সাজুক কিন্তু তার ড্রেসিং টেবিলে প্রয়োজনীয় সব মেক-আপের উপাদান থাকবেই। আমারা অনেক সময় না জেনে অনেক ধরনের মেক-আপ কিনি যেগুলো মানে ভালো হয় না অথবা ত্বকে সুট করে না, শুধু শুধু টাকাটা জলে যায় আবার যারা নতুন মেক-আপ করছে অথবা শিখছে তাদেরও মেক-আপ কেনার জন্য কিছু গাইড লাইন দরকার। তুলনামুলক কম দামে অনেক ভালো মেক-আপ সামগ্রী পাওয়া যায় যেগুলো হাই-এন্ড ব্র্যান্ড যেমন ম্যাক, চ্যানেল, ইংলট, নারস ইত্যাদি ব্র্যান্ডের সমতুল্য অথবা একই রকম শেড অথবা রঙ। বাংলাদেশে অনেক ব্র্যান্ডের কস্মেটিক্স পাওয়া যায়, যার অধিকাংশ নকল অথবা চায়নায় তৈরি। তাই একটি বাজেট করে বিদেশে কেউ থাকলে তার মাধ্যমে অথবা অন লাইন কোন পেজ এর মাধ্যমে আনাতে পারলে ভালো। সেই বাজেট হতে পারে ৫০০০ থেকে ১০,০০০ এর মধ্যে। নতুনদের জন্য কিছু প্রয়োজনীয় মেক-আপ সামগ্রী না থাকলেই নয়, যেমন ফাউন্ডেশন, ফেস প্রাইমার, আই প্রাইমার, আই লাইনার, মাস্কারা, কাজল, কিছু আই শেড, ব্লাস অন, কন্সিলার, কন্টরিং ব্লাশ, কয়েকটা শেডের লিপস্টিক, ফেস পাওডার, হাইলাইটস, ব্রাশ। আজকে শুধু মুখের বেস এর কস্মেটিক্স এর কথা বলব –

ফাউন্ডেশনঃ

সাধারণত আমরা পার্টিতে গেলে ফাউন্ডেশন দেই। ফাউন্ডেশন নির্বাচন করতে হবে নিজের গায়ের শেড থেকে এক অথবা দুই শেড হালকা। তৈলাক্ত ত্বকের জন্য অয়েল ফ্রী এবং নরমাল ও ত্বকের জন্য নরমাল টু ড্রাই ফাউন্ডেশন নির্বাচন করতে হবে। তৈলাক্ত ত্বকের জন্য Maybelline Dream Matte Mousse, Revlon colorstay foundation( oily/combination skin), Covergirl outlast stay fabulous 3 in 1 foundation, Revlon whipped cream, Rimmel lasting finish 25 hour, Mua foundation range খুব ভালো। দাম পরবে ৪০০-১৫০০ এর মধ্যে। শুষ্ক ত্বকের জন্য Revlon colorstay foundation (dry skin) এবং সেন্সেটিভ ত্বকের জন্য Loreal True match Gentle mineral make up, Revlon mineral foundation। দাম একই রকম পড়বে।

revlon

ফেস প্রাইমারঃ

ফেস প্রাইমার অনেক কাজে ব্যবহার করা হয়। মুখের বেস করতে, মেক-আপ কে দীর্ঘক্ষণ ধরে রাখার জন্য, মুখে মেক-আপ ভালো ভাবে বসার জন্য-ও ব্যবহার করা হয়। Elf mineral infused face primer, Rimmel foundation Primer, Mua primer কম দামের মধ্যে অনেক ভালো কাজ দেয়। দাম পড়বে ৫০০-৯০০ এর মধ্যে।

ELF-mineral-primer1

ফেস পাউডারঃ

মুখে ফেস পাউডার আমরা কম বেশি দেই। আমাদের বাংলাদেশ এ jordana, alix avien, Maybelline, Revlon খুব জনপ্রিয়। এরকম দামে অথবা কয়েকশো টাকা যোগ করেই ভালো ফেস পাউডার পেতে পারি। Rimmel Stay Matte Pressed Powder Transparent, Maybelline Purestay Powder & Foundation SPF 15, Maybelline Fit Me! Pressed Powder, Revlon New Complexion One-Step Compact Makeup SPF 15, L’Oreal True Match Super-Blendable Compact Makeup, Neutrogena Healthy Skin Pressed Powder Compact SPF 20। এসব ফেস পাউডার অনেক ভালো। দাম পড়বে ৭০০-১৫০০ এর মধ্যে।

Neutrogena Healthy Skin Pressed Powder Compact SPF 20

ব্লাশ অনঃ

এবার আসা যাক ব্লাস অনের কথায়। মোটামুটি ৩০০-৬০০ টাকার মধ্যে আমারা ভালো মানের ব্লাস অন পাবো। যেমন – ELF, Wet n Wild , Mua , Nyx – বলতে গেলে অনেক নাম করা দামী ব্র্যান্ডের শেড কালারের মতই এদের কালার। যাদের বাজেট নেই, তারা চোখ বন্ধ করে এসব ব্র্যান্ডের ব্লাশ অন কিনতে পারেন।

04

কন্টরিং ব্লাশ অন এবং হাইলাইটসঃ

যেকোন গাঢ় খয়েরী রঙ দিয়ে আমরা কন্টরিং করতে পারি। আবার পালেট কিনে সেটা দিয়ে কন্টরিং এবং হাইলাইটস করতে পারি। মুখের শেপ ঠিক করার জন্য কন্টরিং এবং হাইলাইটস এর তুলনা নেই। Rimmel natural bronzer, e.l.f. Studio Contouring Blush & Bronzing Powder or cream, Mua bronzer অনেক ভালো। দাম পড়বে ১৪০-৫০০ এর মধ্যে। হাইলাইটস MUA, ELF অনেক ভালো। দাম পড়বে ২০০-৪০০ এর মধ্যে। আর যদি কন্টরিং ব্লাশ অন এবং হাইলাইটস পালেট কিনতে চান তাহলে Coastal Scents or BH এর পালেট গুলো খুব ভালো। কিন্তু দাম একটু বেশি পড়বে ১৮০০-৩০০০ এর মধ্যে। তাছাড়া এসব পালেট ebay অথবা amazon এ ১০০০-১২০০ এর মধ্যে কিনতে পারবেন।

05

কন্সিলারঃ

কন্সিলার মুখের দাগ, বলিরেখা ঢাকার জন্য ব্যবহার করা হয়। কন্সিলার ফাউন্ডেশন শেডের থেকে এক শেড হালকা হতে হয়। যেকোন ফাউন্ডেশন স্টিক অথবা কন্সিলার ক্রিম অথবা স্টিক দিয়েও করা যায়। Covergirl, Mua, Nyx, Elf এর কন্সিলার ভালো। দাম ১৪০-৭০০ টাকার মধ্যে। কন্টরিং ব্লাস অন এবং হাইলাইটস পালেটেও ভালো কন্সিলার আছে।

06

ব্রাশঃ

সব চইতে দরকারী জিনিস। মেক-আপ যতই কিনুন, ভালো ব্রাশ ছাড়া মেক-আপের ভালো ফিনিশিং আসবে না। বাজেটের মধ্যে eco tools, Real techniques, Coastal scents, Elf ভালো। ফাউন্ডেশনের জন্য একটি ব্লেন্ডিং সপঞ্জ অথবা স্টিপেল ব্রাশ কিনে নিন। ব্লাশ অন এবং কন্টরিং এর জন্য এঙ্গেল ব্রাশ কিনে নিন, হাইলাইটস এবং কন্সিলার এর জন্য নরমাল ফাউন্ডেশন ব্রাশ কিনে নিন। অথবা সেট ও কিনতে পারেন ব্রাশের , যেটার ভেতর মুখ, ঠোট, চোখ সব ধরনের ব্রাশ পাবেন।

08

সেটিং স্প্রেঃ

মেক-আপ অনেকক্ষণ ত্বকে ধরে রাখার জন্য, মেক-আপ না ঘামার জন্য, মুখে মেক-আপ বসার জন্য সেটিং স্প্রের কোন তুলনা নেই। কমের মধ্যে ভালো মানের Elf এর সেটিং স্প্রে পাবেন। দাম ৩০০-৬০০ এর মধ্যে।

09

(ছোট টিপসঃ মুখে ক্রিম লাগানোর ৫ মিনিট পর ফেস প্রাইমার দিবেন। তার ৫ মিনিট পর ফাউন্ডেশন লাগাবেন। চোখের মেক-আপ করে মুখের মেক-আপ করবেন, এতে করে মুখের বেস নষ্ট হবে না )

আশা করি পোস্ট টি ভালো লাগবে। ধন্যবাদ সবাইকে।

লিখেছেনঃ তাপসী

ছবিঃ প্রোডাক্টরিভিউ.কম, বিউটিউইদাউটলিমিটস.কম, ড্রাগস্টোর.কম, মেকআপঅ্যান্ডবিউটি.কম, মিসগ্ল্যামার.কম, কভারগার্ল.কম, ওহমাইরেইনবো.কম, গ্ল্যামার.কম, কালারমিবিউটিফুলকস্মেটিক্স.কম