ইলেকট্রনিক্সসহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য আমদানি অব্যাহত থাকবে

সান বিডি ডেস্ক || প্রকাশ: ২০২১-০৪-১২ ২০:৫২:৩৭ || আপডেট: ২০২১-০৪-১২ ২১:২৭:৩৭

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ঠেকাতে সরকারের কঠোর লকডাউনের মধ্যে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য, স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী ও ইলেকট্রনিক পণ্য আমদানি যাতে নিরবচ্ছিন্ন থাকে সে লক্ষ্যে অনুমোদিত ডিলার ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

সোমবার (১২ এপ্রিল) কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ফরেন এক্সচেঞ্জ পলিসি ডিপার্টমেন্ট এই নির্দেশনা দিয়ে সার্কুলার ইস্যু করেছে। গত ৬ এপ্রিল বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞান জারি করার তারই আলোকে নির্দেশনা দিলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনায় বলা হয়, এসব পণ্য আমদানি নিরবচ্ছিন্ন রাখার পাশাপাশি আমদানি করা পণ্য খালাস, পরিবহন, কুরিয়ার ব্যবস্থা ও ওয়্যারহাউস কারযক্রম স্বাস্থ্যবিধি মেনে অব্যাহত রাখতে হবে। এরআগে রমজানে নিত্যপণ্য সরবরাহ ঠিক রাখতে আমদানির ক্ষেত্রে এলসি মার্জিন নুন্যতম পরযায়ে নামিয়ে আনার নির্দেশনা দিয়েছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

যদি কোন ব্যবসায়ী বা আমদানিকারকের হাতে নগদ টাকা না থাকে সেক্ষেত্রে সামান্য কিছু টাকা নিয়ে পুরো আমদানির ব্যয় মিটানোর জন্য ব্যাংক ঋণ নিতে পারেন। যেসব ব্যাংক আমদানিকারকদের হয়ে বৈদেশিক মুদ্রা লেনদেন করে থাকে সেগুলো অনুমোদিত বা অথোরাইজড ডিলার নামে পরিচিত।

আমদানিকারকের কাছ থেকে যে সামান্য টাকা নেয়া হয় সেটাই এলজি মার্জিন হিসেবে পরিচিত। ক্ষেত্র বিশেষে ব্যাংকগুলো ২ থেকে ৫ শতাংশ পরযন্ত এলসি মার্জিন নিয়ে থাকে। অবশ্য ভালো গ্রাহক হলে এলসি মার্জিন শুন্য শতাংশও হয়ে থাকে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •