ভারত ফুটবল দলকে খেলতে না দেওয়ায় নীলফামারীতে মানববন্ধন

জেলা প্রতিনিধি প্রকাশ: ২০২২-১১-২২ ১৫:১৪:৫৭


ভারত-বাংলাদেশ নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল গোল্ডকাপ ফুটবল টুনামেন্ট নিয়ে ষড়যন্ত্রকারিদের বিচারের দাবি ও পুনরায় খেলা শুরুর দাবিতে মানববন্ধন করেছে নীলফামারীর সর্বস্তরের জনগণ।

গতকাল সোমবার (২১ নভেম্বর) সকাল ১১ টায় নীলফামারী শহরের চৌরঙ্গী মোড়ে ঘন্টাব্যাপি মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, গত ৪ নভেম্বর পঞ্চগড় জেলা স্টেডিয়ামে উদ্বেধনী অনুষ্ঠান ও গত ১৮ নভেম্বর ফাইনাল খেলাটি নীলফামারী জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও খেলাগুলো আর মাঠে গড়ায়নি। এতে করে আমারদের বন্ধু ভারত টিমকে অপমান করা হয়েছে। আমাদের দেশে একটি মহল ভারতকে বন্ধু না ভেবে শত্রু ভাবে। তারা চায় না আমাদের বাংলাদেশের সাথে ভারতের সুসম্পর্ক থাকুক। এই ষড়যন্ত্রকারীরা আমাদের প্রিয় শহর নীলফামারীতেও আছে।

এসময় ফুটবল প্রেমী সুজন মিয়া জানান, ভারত-বাংলাদেশ নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট নিয়ে শুরু থেকেই একটি মহল ষড়যন্ত্র করে আসছে। তারা মূলত চায় না আমাদের রংপুর বিভাগে ফুটবল খেলা জনপ্রিয়তা পাক। এই ষড়যন্ত্রকারীদের রংপুর বিভাগের সর্বস্তরের জনগণকে নিয়ে তাদের দাঁতভাঙ্গা জবাব দিতে হবে। যাতে করে তারা কখনোই আমাদের জনপ্রিয় খেলা ফুটবলকে নিয়ে নেংরা ষড়যন্ত্রে মেতে না উঠে।

এসময় মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারী আবুল হোসেন বলেন, রংপুর বিভাগ একটি শান্তি প্রিয় বিভাগ,আমরা সবাই ভাই ভাই, কিন্তু একটি পক্ষ আমাদের এই ভালো কাজকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে উঠে পড়ে লেগেছে। আমরা এই মানববন্ধন থেকে হুশিয়ারী দিয়ে বলতে চাই উওরবঙ্গের ফুটবল নিয়ে নেংরামি না করে আসুন সবাই কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে উওরবঙ্গের ফুটবলকে দেশে বিদেশে তুলে ধরি।

শফিক নামের আরো একজন ফুটবল প্রেমী জানান, নীলফামারী শেখ কামাল স্টেডিয়াম, দিনাজপুর স্টেডিয়াম, রংপুর স্টেডিয়াম, কুড়িগ্রাম স্টেডিয়াম, পঞ্চগড় স্টেডিয়াম
কারো পৈতৃক সম্পত্তি নয়, এই স্টেডিয়াম গুলো আমাদের দিয়েছে আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, এখানে সবাই খেলতে পাবে। তাছাড়া ভারত আমাদের বিপদের দিনের বন্ধু, তাদের খেলতে না দিয়ে অপমান করা হয়েছে। ভারতকে অপমান করা মানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অপমান করা।

তিনি আরো বলেন, অবিলম্বে নীলফামারী শেখ কামাল স্টেডিয়াম, দিনাজপুর স্টেডিয়াম, রংপুর স্টেডিয়াম, কুড়িগ্রাম স্টেডিয়াম, পঞ্চগড় স্টেডিয়াম উন্মুক্ত করে দেওয়া হোক, উওরবঙ্গের ফুটবল প্রেমীরা যাতে ভারত-বাংলাদেশ নর্থ বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের খেলা গুলো স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে দল মত নির্বিশেষে দেখতে পারে।

এম জি

Print Print