পর্দায় আত্মজীবনী নিয়ে ফিরছেন দিতি

|| প্রকাশ: ২০১৫-০৯-২২ ১২:৩৬:০৮ || আপডেট: ২০১৫-০৯-২২ ১২:৩৬:০৮

Dityব্রেন টিউমারে আক্রান্ত হয়ে সম্প্রতি ভারতের চেন্নাইয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন অভিনেত্রী দিতি। মস্তিষ্কে সফল অস্ত্রোপচার শেষে গতকাল রোববার দেশে ফিরেছেন। কিন্তু শরীর দূর্বল থাকায় এখনই কাজে ফিরছেন না তিনি। তবে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেয়ের হাতে নিজের আত্মজীবনী লিখেছেন। যা নিয়ে শিগগিরই শত পর্বের একটি নাটক নির্মাণ করতে যাচ্ছেন তিনি। সোমবার এমনটাই জানালেন এ অভিনেত্রী।

চেন্নাইয়ের মাউন্ট হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে টানা ৫০ দিনের বিশ্রামে ছিলেন দিতি। এ সময়টায় চিকিৎসার পাশাপাশি নিজের দুই সন্তানকে নিয়ে ঘুরে বেড়িয়েছেন নানা দর্শনীয় স্থানে। এমন কি হলে গিয়ে সিনেমাও দেখেছেন। হাসপাতালের বিছানায় শুয়েই নিজের আত্মজীবনী লেখার পরিকল্পনা আঁটেন দিতি। যে কথা সেই কাজ। নিজের স্মৃতি পরিভ্রমণ করেছেন দিতি। আর তা লিখেছেন একমাত্র মেয়ে লামিয়া চৌধুরী।

এ প্রসঙ্গে দিতি বলেন, ‘হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে শুয়ে নিজের জীবনে ঘটে যাওয়া অনেক ঘটনাই মনে পড়েছে। আর সেগুলো আমার মুখ থেকে শুনে একটি স্ক্রিপ্ট লিখেছে লামিয়া। যা আমার আত্মজীবনীই বলা যেতে পারে। সুস্থ হয়ে, এটা নিয়ে একশ পর্বের নাটক নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। খুব তাড়াতাড়ি এর কাজ শুরু করব।’

তিনি আরো বলেন, ‘অস্ত্রোপচার ও ওষুধের কারণে আমার চেহারা অনেকটাই পাল্টে গিয়েছে। এটা নিয়ে একটি স্ক্রিপ্ট তৈরি করছি। ঈদের পরপরই গল্পটি নিয়ে একটা নাটক নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে।’

এদিকে আগামী ১০ থেকে ১৫ দিনের মধ্যেই অভিনয়ে ফিরবেন বলে জানিয়েছেন দিতি। ইতিমধ্যে তার হাতে বেশ কিছু কাজ জমা রয়েছে। মূলত চিকিৎসকের পরামর্শেই দ্রুত কাজে ফিরছেন তিনি। এ বিষয়ে দিতি বলেন, ‘আমি ভেবেছিলাম, আর হয় তো অভিনয় করবো না। কিন্তু চিকিৎসকরাই আমাকে দ্রুত কাজে ফেরার পরামর্শ দিয়েয়েছেন। এটা আমার দ্রুত সুস্থতা নিশ্চিত করবে।