মর্গে নেয়ার পথে জেগে উঠল লাশ!

|| প্রকাশ: ২০১৫-১১-০৩ ২১:১৩:১৭ || আপডেট: ২০১৫-১১-০৩ ২১:৩১:৪৩

image----_89355চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেছেন। পুলিশ তাড়া দিচ্ছে ময়নাতদন্তের জন্য। দুই ঘণ্টা অপেক্ষার নিয়ম ভেঙে তড়িঘড়ি মর্গে পাঠানো হলো ‘লাশ’। মর্গে যাওয়ার পথে হুঁশ আসে সেই লাশের। ভারতের বৃহন্মুম্বাই মিউনিসিপ্যালিটির এক হাসপাতালে এ ঘটনা বলে জানা গেছে কলকাতার একটি পত্রিকার অনলাইনে।

তাতে বলা হয়, ১ নভেম্বর প্রকাশ নামে গুরুতর অসুস্থ বছর পঞ্চাশের এক ভবঘুরেকে ওই হাসপাতালে আনে পুলিশ। হাসপাতাল সিএমও প্রকাশকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এরপর তার দেহের ময়নাতদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়।

মর্গে যাওয়ার পথে হঠাৎই প্রকাশের পেটের কাছটা ওঠানামা শুরু করে। হাসপাতালের কর্মচারীরা এই ‘ভুতুড়ে’ কাণ্ডে প্রথমে ঘাবড়ে যান। তাদের মধ্যেই একজন খানিকটা সাহস সঞ্চয় করে প্রকাশের নাকের কাছে হাত রাখলে গরম নিঃশ্বাসের উপস্থিতি টের পান। তৎক্ষণাৎ খবর দেয়া হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে। দ্রুত প্রকাশকে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়।

হাসপাতালের ডিন জানিয়েছেন, প্রকাশকে যখন আনা হয়েছিল তখন তার নাড়ি চলছিল না, স্থির হয়ে গিয়েছিল চোখের তারা। শুনতে পাওয়া যাচ্ছিল না হৃদস্পন্দন। এই অবস্থায় নাকি তাই ‘ভুল’ করে ফেলেছেন চিকিৎসকরা।

ময়নাতদন্তের নির্দেশের আগে  নিয়ম অনুযায়ী কেন অন্তত দুই ঘণ্টা অপেক্ষা করা হলো না? সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে ডিনের অভিযোগ, পুলিশ নাকি এতটাই তাড়া দিচ্ছিল, তারা চটজলদি সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হন। তবে পুলিশ এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

সানবিডি/ঢাকা/রাআ