দাম্পত্য সম্পর্ক নষ্ট হতে পারে যেসব কারণে

|| প্রকাশ: ২০১৫-১১-০৯ ২০:২১:৫৯ || আপডেট: ২০১৫-১১-০৯ ২০:২২:২৫

warning signs of a troubled marriage pic_90139 (1)বিয়ের পর দাম্পত্য সম্পর্কে চমৎকার কাটবে সব স্বামী-স্ত্রী প্রত্যাশা করে। একজন আরেকজন অনেক ভালোবাসবে, দুজনের বোঝাপড়া ভাল হবে, দুজনই দায়িত্বশীল আচরণ করবে ইত্যাদি। কিন্তু বাস্তবে অনেক সময় এমনটি নাও ঘটতে পারে। দেখা যায়, বিয়ের কয়েক মাস পরেই দুজনের মধ্যে মনোমালিন্য, খুঁটিনাটি বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ঝগড়া, বোঝাপড়ার অভাব লক্ষ্য করা যায়। অনেক ছোট কারণেও স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কে ভাঙন সৃষ্টি হতে পারে। তাহলে কিভাবে বুঝবেন আপনার দাম্পত্য সম্পর্ক খারাপ দিকে এগুচ্ছে? নিচে এমন কিছু অবস্থার কথা বলা হলো যাতে বুঝবেন আপনার বৈবাহিক সম্পর্ক খারাপ দিকে যাচ্ছে। যদি এ রকম কিছু আপনার বিবাহিত জীবনে ঘটতে থাকে তাহলে এখনই সাবধান হোন। মূল সমস্যা চিহ্নিত করে সমাধানে পদক্ষেপ নিন।

১. কথায় কথায় অতীত টেনে আনা, সাবেক প্রেমিক-প্রেমিকার নাম নিয়ে খোঁটা দেওয়া, শ্বশুরবাড়ি নিয়ে বাজে কথা বলা যদি স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে স্বাভাবিক ঘটনা হয়, তাহলে বুঝবেন আপনাদের দাম্পত্য সম্পর্ক খারাপ দিকে যাচ্ছে।

২. দুজনেই ঝগড়া করার জন্য ইস্যু খোঁজা। একজন আরেকজনকে এড়িয়ে চলতে চেষ্টা করা, বাড়ি ফিরে আসতে না চাওয়া, তুচ্ছ কারণে বড় ধরনের ঝগড়া করা। দৃশ্যত কোনো সমাধান খুঁজে না পাওয়া। এসব কারণও আপনার দাম্পত্য জীবনে রেড সিগন্যাল দিতে পারে।

৩. কোনো বিষয়ে দুজনের ঐক্যমত্যে পৌঁছাতে না পারা। যুক্তি ছাড়া কথা বলা, নিজে যা বলছেন তাকেই সঠিক বলে মনে করা।

৪. হিংসা করা, অসৎ প্রতিযোগিতায় মেতে উঠা, না জেনে অপমান করা। নিজের স্ত্রীকে বিশ্বাস করতে না পারা।

৫. স্ত্রী নিজেকে ছাড়া কিছু বুঝে না, আপনার সাথে অপরিচিত লোকের মত ব্যবহার করে, আপনাকে সহ্য করতে পারে না। এসব কারণে আপনি নিজেকে পরিবারের কেউ ভাবতে পারছেন না। এই বিষয়গুলোও স্বামী-স্ত্রী সম্পর্ক নষ্ট করতে পারে।

৬. স্বামী-স্ত্রীর কেউ যদি প্রতারণা করে বা পরকীয়া সম্পর্ককে জড়ায়। পরকীয়া ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ যা আপনার বিবাহিত জীবনকে শেষ করে দিতে পারে।

৭. দুজনের কারোই সেক্স সম্পর্কে আগ্রহ না থাকা বা বিভিন্ন কারণে সেক্সের প্রতি অনীহা প্রকাশ করা। যদি স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে স্বাভাবিক যৌন সম্পর্ক না ঘটে তাহলে বুঝবেন আপনার বৈবাহিক সম্পর্ক খারাপ অবস্থায় যাচ্ছে। কারণ বৈবাহিক সম্পর্ক মজবুত করতে সেক্স গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

৮. দুজনের পক্ষ থেকে যোগাযোগ কমে যাওয়া। ভালোবাসা প্রকাশ করে এমন আচরণ না করা। মেইল বা ক্ষুদে বার্তায় কারো কোনো খোঁজ না নেওয়া। যখন দেখবেন দুজনের পক্ষ থেকে কোনো কথা হচ্ছে না, আন্তরিকতাও নেই। তখন বুঝবেন আপনাদের সম্পর্কে চূড়ান্ত অবনতির দিকে চলে এসেছে।

সানবিডি/ঢাকা/রাআ