শাহরুখ-গৌরির পরিচয় ও বিয়ে যেভাবে

|| প্রকাশ: ২০১৫-১০-০১ ১৩:০৬:৫৬ || আপডেট: ২০১৫-১০-০১ ১৩:০৬:৫৬

shahrukh_gauri_khan1443636554অনেকের মতেই, বলিউডের সেরা দম্পত্তি শাহরুখ খান ও গৌরি। ভালোবাসা, পারস্পরিক সমঝোতা এবং বিশ্বস্ততার জন্য বলিউডে আলোচিত এ দম্পতি। ব্যক্তিগত ও ঝলমলে পেশাজীবনের নানা টানাপড়েন ও গুজবকে পাশ কাটিয়ে তারা সুখী দম্পতির প্রতীক।

শাহরুখ-গৌরির পরিচয়, ভালোবাসা ও বিয়ের গল্প সিনেমার কাহিনির চেয়েও বেশি রোমাঞ্চকর। ১৯৯১ সালের ২৫ অক্টোবর বিয়ে হয় শাহরুখ-গৌরির। সে সময়ে অন্য ধর্মে বিয়ে করা অত্যন্ত কঠিন কাজ ছিল। বিশেষত মধ্যবিত্ত সমাজের গণ্ডীর মধ্যে থাকা মানুষদের জন্য। তা সত্ত্বেও সব বাধা বিপত্তিকে দূরে সরিয়ে রেখে পরিবারের মত নিয়ে হিন্দু ধর্মের গৌরিকে বিয়ে করেন শাহরুখ খান। জেনে নিন সে কাহিনি।

প্রথম দেখা ১৯৮৪ সালে। তখন শাহরুখের বয়স ১৯, আর গৌরির ১৪ বছর। এক বন্ধুর বাড়িতে দেখা হয় শাহরুখ-গৌরির। প্রথম দেখাতেই গৌরির প্রেমে পড়ে যান শাহরুখ। গৌরিকে নাচতে দেখে শাহরুখ কোনোমতে সাহস সঞ্চয় করে তার কাছে যান ও একসঙ্গে নাচের প্রস্তাব দেন। গৌরি সঙ্গে সঙ্গেই প্রস্তাব খারিজ করে জানিয়ে দেন, তিনি বয়ফ্রেন্ডের জন্য অপেক্ষা করছেন।

শাহরুখ জানতে পারেন কোনো বয়ফ্রেন্ড নয়, নিজের ভাইয়ের জন্য অপেক্ষা করছে গৌরি। তখন শাহরুখ এগিয়ে এসে বলেন, ‘আমাকেও তোমার একজন ভাই মনে করো’। এভাবেই শুরু হয় দুজনের আলাপ, যা পরবর্তীতে প্রেমে রুপ নেয়।

কিন্তু কিছুদিন যেতে না যেতেই গৌরিকে নিয়ে প্রচন্ড পজেসিভ হয়ে পড়েন শাহরুখ। এমনকি চুল খোলা অবস্থায় গৌরিকে দেখলে ভীষণ চটে যেতেন তিনি। এসব কারণে ছোটখাটো নানা বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। যা দেখে প্রচন্ড বিরক্ত হন গৌরি এবং শাহরুখকে না জানিয়ে তিনি বন্ধুদের সঙ্গে চলে আসেন মুম্বাই।

গৌরিকে না পেয়ে তার খোঁজ করেন শাহরুখ। এরপরে ভুল বুঝতে পেরে নিজের মাকে সব খুলে বলেন শাহরুখ। মায়ের দেওয়া টাকা সঙ্গে নিয়ে শাহরুখ মুম্বাই চলে যান গৌরির নির্দিষ্ট ঠিকানা না জানা সত্ত্বেও। তবে শাহরুখ এটা খুব ভালো করেই জানতেন, সমুদ্রসৈকত দারুন পছন্দ গৌরির। এজন্য তিনি মুম্বাইয়ের বিভিন্ন সৈকতে প্রেমিকাকে খুঁজতে শুরু করেন। একদিন আকসা সমুদ্রসৈকতে ঠিকই তিনি গৌরির দেখা পেয়ে যান। দেখা হতেই কেঁদে ফেলেন দুজনেই। শাহরুখ-গৌরি দুজনেই উপলব্ধি করেন নিজের ভালোবাসার কথা।

এরপরই বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন দুজনে। কারণ তারা বুঝেছিলেন, একে অপরকে ছেড়ে তারা থাকতে পারবেন না। এরপরই শুরু হয় আসল পর্ব।

গৌরি ছিলেন হিন্দু ব্রাহ্মণ। তার পিতা ছিলেন সম্পূর্ণ নিরামিষাশী। আর শাহরুখ মুসলিম। স্বভাবতই রাজি ছিল না গৌরির পরিবার। ধর্মকে পাশে সরিয়ে রেখেও শাহরুখের কাজকর্মের ঠিক না থাকাকেই তুলে ধরেন তাঁরা।

এ ছাড়া শাহরুখ সিনেমায় কাজ করতে চান শুনে আরও বেঁকে বসেন গোরির বাড়ির সকলে। ফলে কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে সেসময়ে যেতে হয়েছিল দুজনকে। প্রায় পাঁচবছর লুকিয়ে সম্পর্ক রাখার পরে নিজেদের ভালোবাসার কথা বাড়ির সকলকে বোঝানোর পরে অভিভাবকদের আশীর্বাদ নিয়ে ১৯৯১ সালের ২৫ অক্টোবর হিন্দু মতে বিয়ে করেন শাহরুখ-গৌরি।

সানবিডি/ঢাকা/রাআ