পর্যটনস্পট বন্ধ থাকলে ৯ হাজার কোটি টাকা ক্ষতির সম্ভাবনা

সান বিডি ডেস্ক || প্রকাশ: ২০২১-০৬-১০ ১৪:৫৬:২৫ || আপডেট: ২০২১-০৬-১০ ১৪:৫৬:২৫

দেশে মহামারি করোনা‍ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকার ঘোষিত ‘বিধিনিষেধে’ দেশের ছোট-বড় মিলিয়ে প্রায় এক হাজার ট্যুরিস্ট স্পট বন্ধ রয়েছে। এতে বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে বাংলাদেশের পর্যটনশিল্প। সংক্রমণ রোধে যদি আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত লকডাউন বা বিধিনিষেধ থাকে, তবে এই খাতে প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকা ক্ষতি হতে পারে।

আজ বৃহস্পতিবার (১০ জুন) সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে ট্যুর অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টোয়াব) আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানানো হয়।

এসময় টোয়াব সভাপতি মো. রাফেউজ্জামান পর্যটনখাত বাঁচাতে আগামীকাল থেকে স্বাস্থ্যবিধি ও স্ট্যান্ডার্ড অপারেশনাল প্রসেডিউর (এসওপি) মেনে দেশের সব পর্যটনকেন্দ্র খুলে দেয়ার দাবি জানান। একই সঙ্গে ক্ষতিগ্রস্ত ট্যুর অপারেটরদের প্রণোদনা দেয়ার দাবিও জানান তিনি।

এই সংবাদ সম্মেলনে টোয়াবের পক্ষ থেকে জানানো হয়, করোনার কারণে ২০২০ সালে পর্যটনখাতে প্রায় ২০ হাজার কোটি টাকার লোকসান হয়েছে। এ শিল্পের সঙ্গে জড়িত প্রায় ৪০ লাখ মানুষ মানবেতর জীবনযাপন করছেন। অনেকে হতাশ হয়ে অন্য ব্যবসায় চলে যেতে বাধ্য হচ্ছে। আগামী অর্থবছরের বাজেটে পর্যটনখাতে যতোটুকু বরাদ্দ রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে, তা আগের বছরের তুলনায় বেশি হলেও সার্বিক বিবেচনায় অপ্রতুল।

সানবিডি/এনজে

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •