বিদেশি টাইলস আমদানিতে ট্যারিফ মূল্য বাড়ানোর আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক || প্রকাশ: ২০২১-০৬-১০ ১৫:৫১:৩৯ || আপডেট: ২০২১-০৬-১০ ১৫:৫১:৩৯

আমদানিতে ন্যূনতম ট্যারিফ মূল্য না কমিয়ে তা আরও বাড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ সিরামিক ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিসিএমইএ) নেতারা।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) জাতীয় প্রেস ক্লাবের তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে এক সংবাদ সম্মেলনে তারা এই আহ্বান জানান। বিসিএমইএ’র সভাপতি সিরাজুল ইসলাম মোল্লার সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক ইরফান উদ্দিনসহ সংগঠনের অন্যান্য সিনিয়র নেতারা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, দেশি সিরামিক শিল্প রক্ষায় বিদেশে তৈরি টাইলস আমদানির ন্যূনতম ট্যারিফ মূল্য না কমিয়ে আরও বৃদ্ধির করা হোক। পাশাপাশি দেশীয় সব টাইলস এবং স্যানিটারি পণ্য উৎপাদন ও সরবরাহ পর্যায়ে আরোপিত সম্পূরক শুল্ক সম্পূর্ণ প্রত্যাহার করতে হবে।

বিসিএমইএ সভাপতি সিরাজুল ইসলাম মোল্লা বলেন, যেখানে দেশীয় পণ্যের ওপর উৎপাদন পর্যায়ে ১৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক এবং বিক্রয়কালীন সময়ে ১৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর আরোপ রয়েছে, সেখানে তৈরি পণ্যের আমদানি পর্যায়ে ট্যারিফ মূল্য হ্রাস করার ফলে দেশীয় পণ্য অসম প্রতিযোগিতার সম্মুখীন হবে। ফলে এই খাতে বিনিয়োগে আগ্রহ কমে যাবে। পাশাপাশি কর্মসংস্থানের সুযোগ সম্ভাবনাও ক্ষীণ হয়ে যাবে।

তিনি আরও বলেন, বাজার সংকুচিত হলে সিরামিক খাতটি রুগ্ন শিল্পখাত হিসেবে পরিণত হতে পারে। এতে আর্থিক বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তি মারাত্মক ঝুঁকিতে পড়বে। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতিতে সিরামিক শিল্প এমনিতেই টিকে থাকতে হিমশিম খাচ্ছে। তাই দেশীয় সিরামিক শিল্প সুরক্ষায় বিদেশে তৈরি টাইলস আমদানি পর্যায়ে ন্যূনতম ট্যারিফ মূল্য হ্রাস না করে আরও বাড়ানো জরুরি।

সাধারণ সম্পাদক ইরফান উদ্দিন বলেন, দেশীয় সিরামিক খাতের ওপর উৎপাদন ও সরবরাহ পর্যায়ে আরোপিত সম্পূরক শুল্ক সম্পূর্ণ প্রত্যাহার করা হলে মূল্য কমে যাবে। এর পাশাপাশি ব্যবহারের মাত্রাও বাড়বে। যার ফলে বিক্রয় বৃদ্ধির মাধ্যমে সরকারের রাজস্ব আয়ের পরিমাণও বৃদ্ধি পাবে।

তাই দেশীয় সকল প্রকারের টাইলস এবং স্যানিটারি পণ্য উৎপাদন ও সরবরাহ পর্যায়ে আরোপিত সম্পূরক শুল্ক সম্পূর্ণ প্রত্যাহার জরুরি বলেও তিনি জানান।

সানবিডি/এএ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •