সিদ্ধান্ত দু’একদিনের মধ্যেই

|| প্রকাশ: ২০১৫-১০-০৩ ১৫:০১:০২ || আপডেট: ২০১৫-১০-০৩ ১৫:০১:০২

Saka Chaudhury

আপিল বিভাগের চূড়ান্ত রায়ের পুনর্বিবেচনা (রিভিও) চেয়ে আবেদন করবেন কি-না সে বিষয়ে এখনও নিজের  সিদ্ধান্তের কথা জানাননি মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডাদেশ পাওয়া সালাউদ্দিন কাদের সাকা চৌধুরী। তবে আগামী দু’একদিনের মধ্যে জ্যেষ্ঠ আইনজীবীদের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা রয়েছে তার।

শনিবার (০৩ অক্টোবর) সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর কনিষ্ঠ আইনজীবী হুজ্জাতুল ইসলাম আলফেসানির কাছে জানতে চাইলে তিনি এ কথা বলেন।

বাংলানিউজকে তিনি বলেন, আশা করি, আগামী দু’একদিনের মধ্যেই আমরা তার সিদ্ধান্ত জানতে পারবো। তবে এর আগে কারা কর্তৃপক্ষের কাছে তার সঙ্গে দেখা করার অনুমতি চেয়ে আবেদন করতে হবে। কারা কর্তৃপক্ষ দেখা করার অনুমতি দিলে তবেই মনোনীত আইনজীবীরা তার সঙ্গে দেখা করতে যাবেন।

তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত সাকা চৌধুরীর পরিবারের পক্ষ থেকে দেখা করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসেনি। ফলে কবে কখন কোন কোন আইনজীবী তার সঙ্গে দেখা করবেন সেটা এখনই বলতে পারছি না।

মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল রেখে গত ১৬ জুন জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ ও ২৯ জুলাই বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর মামলার সংক্ষিপ্ত চূড়ান্ত রায় দেন আপিল বিভাগ। বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) এ দু’জনের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ পায়। এরপর বৃহস্পতিবার (০১ অক্টোবর) দু’জনকে আপিল বিভাগের রায় অবহিত করে কারাগার কর্তৃপক্ষ। তাদেরকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের মৃত্যু পরোয়ানাও পড়ে শোনানো হয়।

সে থেকে দু’জনই রিভিউ করার জন্য ১৫ দিন সময় পাবেন। শনিবার সকালে মুজাহিদের আইনজীবীরা ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে তার সঙ্গে দেখা করে এসে জানান, তিনি রিভিউ আবেদন করবেন বলে সিদ্ধান্ত জানিয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন।

এদিকে অন্য একটি সূত্রে জানা গেছে, আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ চূড়ান্ত রায় প্রকাশের পর রায়ের অনুলিপি সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর কাছে পৌঁছানো হয়েছে। তিনি সম্পূর্ণ রায় পড়ে পুনর্বিবেচনার আবেদন করবেন কি-না সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন। তাছাড়া কোন কোন আইনজীবীর সঙ্গে তিনি এ বিষয়ে পরামর্শ করতে চান সে বিষয়টিও জানাবেন।

এ বিষয়ে জানতে সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর স্ত্রী ফারহাত কাদের চৌধুরী এবং ছোট ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরীর মোবাইলে একাধিকবার ফোন করা হলেও তারা কেউই ফোন ধরেননি।