ক্লাস আর আড্ডায় মেতে উঠেছে রাবি ক্যাম্পাস

|| প্রকাশ: ২০১৬-০১-২১ ১৮:১২:২৭ || আপডেট: ২০১৬-০১-২১ ১৮:১২:২৭

রাবিশীতকালীন ছুটি শেষে শিক্ষক ধর্মঘটে স্থবির হয়ে পড়েছিল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি)। টানা ২০ দিন পর প্রাণ ফিরে পেয়েছে মতিহারের সবুজ চত্বর। বৃহস্পতিবার থেকে সব বিভাগে নিয়মিত ক্লাস শুরু হয়েছে। শিক্ষার্থীরা ফিরতে শুরু করায় আবারওে ক্লাস ও আড্ডায় মেতে উঠেছে ক্যাম্পাস।

এদিকে, বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের ক্লাস ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে। ৩০ জানুয়ারি সাধারণ শিক্ষার্থী এবং ১ ফেব্রুয়ারি কোটাভুক্ত শিক্ষার্থীদের ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে ৬ ফেব্রুয়ারিতে ক্লাস শুরুর সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানান রাবির ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ছাদেকুল আরেফিন।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, অন্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষকদের কর্মসূচি স্থগিত হওয়ায় বুধবার থেকে ক্লাস শুরু হয়েছে। তবে রাবি শিক্ষক সমিতি বুধবার সন্ধ্যায় সাধারণ সভা শেষে বৃহস্পতিবার থেকে ক্লাসে ফিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। তাই বৃহস্পতিবার থেকে ক্লাস শুরু হয়েছে রাবিতে। ক্যাম্পাস ঘুরে দেখা যায়, সকাল ৮টা থেকে বিভিন্ন বিভাগের ক্লাস-পরীক্ষা শুরু হয়েছে। শিক্ষার্থীদের উপস্থিতে জমে উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ক্লাসসহ আড্ডাস্থল।

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী গোলাম মোস্তফা বলেন, ‘ক্যাম্পাস বন্ধ থাকলে বাড়িতে হাত গুটিয়ে বসে থাকা ছাড়া কোনো উপায় থাকে না। ক্যাম্পাসে এসে মনে হলো আমি যেন জীবন ফিরে পেয়েছি। আমি চাই, ক্যাম্পাসের কোমলতা যেন নষ্ট না হয়।’

শুধু শিক্ষার্থীদের মাঝে নয়, স্বস্তি ফিরেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপর নির্ভর করে বেঁচে থাকা পরিবারগুলোতে। চত্বরগুলোতে যারা প্রতিদিন সকাল থেকে চা, সিঙ্গাড়া, পুরি বিক্রি করেন তাদের সংসার চলে এই ক্যাম্পাস থেকে। আবার যারা ক্যাম্পাসে রিকশা চালান তাদেরও একই অবস্থা।

ক্যাম্পাসের এক দোকারদার বলেন, ‘প্রতিদিন এখানে নাস্তা বিক্রি করে যে আয় হয় তা দিয়ে আমার সংসার ভালোভাবে চলে যায়। কিন্তু ক্যাম্পাস বন্ধ হলে সংসার চালানো আমার জন্য কঠিন হয়ে পড়ে। আর সারাদিন সবার হাসিমাখা মুখ দেখে দিনটাও খুব ভালো কাটে।’

সানবিডি/ঢাকা/আহো