বাংলাদেশের পথে ভারতকে চায় নেপাল

|| প্রকাশ: ২০১৬-০১-২৩ ১৫:৫৫:৪৫ || আপডেট: ২০১৬-০১-২৩ ১৫:৫৫:৪৫

sasia-map-wb-230x155বাংলাদেশের সাথে সবচেয়ে সংক্ষিপ্ত বাণিজ্য পথ বাস্তাবয়নে ভারতের সহযোগিতা চায় নেপাল। দেশটির উপ পররাষ্ট্রমন্ত্রী কামাল থাপা জানিয়েছেন, নেপালের সরকার এ রুট বাস্তবায়নকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে।

শুক্রবার কাঠমাণ্ডুতে নেপাল-বাংলাদেশ বিজনেস ফোরামে বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এ কথা জানান। বাংলাদেশ দূতাবাসের সহায়তায় নেপাল ভিত্তিক থিংক ট্যাংক এশিয়ান ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমেসি অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স (এআইডিআইএ) প্রথমবারের মতো এ ফোরামের আয়োজন করেছে।

এতে অন্যান্যদের মধ্যে বাণিজ্য সচিব হেদায়েতুল্লাহ আল মামুন, ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি (এফবিসিসিআই) মাতলুব আহমাদ, নেপালে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত মাশফি বিনতে শামস প্রমুখ অংশগ্রহণ করেন।

ফোরামে আলোচনাকালে থাপা বলেন, নেপাল সরকার কাকাবিত্তা-পানিটাংকি-ফুলবাড়ি-বাংলাবান্ধাকে রুটকে সচল করাকে অগ্রাধিকার দিচ্ছে। বাংলাদেশের সাথে সবচেয়ে সংক্ষিপ্ত এ বাণিজ্য পথ বাস্তবায়নে তার সরকার ভারতের সহযোগিতা চায়।প্রসঙ্গত, কাকাবিত্তা ও পানিটাংকি নেপাল-ভারত সীমান্তে এবং ফুলবাড়ি ও বাংলাবান্ধা ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে অবস্থিত।তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ-নেপাল বাণিজ্যিক সম্পর্কোন্নয়নে বেসরকারি খাতকে পূর্ণ সহযোগিতা দিতে বদ্ধ পরিকর।

পরে আলোচনাকালে রুট বাস্তবায়নকে অগ্রাধিকার তালিকায় রাখায় বাণিজ্য সচিব নেপাল সরকারকে সাধুবাদ জানান। তিনি বলেন, এটি বাস্তবায়ন হলে দু-দেশই উপকৃত হবে। ফোরামে বক্তারা অভিন্ন সমস্যা সমাধানে দক্ষিণ এশীয় দেশগুলোর মধ্যে অর্থনৈতিক সম্পর্ক উন্নয়নে ওপর জোর দেয়ার আহ্বান জানান।

এরই প্রেক্ষিতে নেপালে বাংলাদেশি বিনিয়োগে উৎসাহিত করতে দেশটির সরকারকে আইনী প্রক্রিয়া সহজ করে তোলার আহ্বান জানান এফবিসিসিআই সভাপতি।

সানবিডি/ঢাকা/আহো