প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তি করায় ইবিতে এক ছাত্রকে ছাত্রলীগের মারধর

|| প্রকাশ: ২০১৬-০১-২৩ ২০:২৮:৫৭ || আপডেট: ২০১৬-০১-২৩ ২০:২৮:৫৭

EU-1420803623প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটুক্তি করায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে মেহেদী হাসান নামে এক ছাত্রকে মারধর করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ কর্মীরা। আজ বেলা ১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষদ ভবনের করিডরে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির সহায়তায় ভ্রাম্যমান আদালতে সোপর্দ করা হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইমোতে গত ২১ জানুয়ারী বাংলা বিভাগের একটি পেজে পোস্ট করা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি ছবিতে কটুক্তি করে সে মন্তব্য করেছিলো। উক্ত ঘটনার জের ধরেই আজ দুপুর ১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষদ ভবনের করিডরে তাকে ছাত্রলীগ কর্মীরা ব্যাপক মারধর করে। মারতে মারতে তাকে ছাত্রলীগের দলীয় টেন্টে নিয়ে আসে। সেখানে এনে আরেক দফা মারধর করে ছাত্রলীগ কর্মীরা। পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. মাহবুবুর রহমান, ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম ও সাধারন সম্পাদক অমিত কুমার দাসের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে। পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিস্কার করে এবং কুষ্টিয়া জেলার ভ্রম্যমান আদালতে সোপর্দ করে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমান বলেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটুক্তি করা অত্যন্ত গর্হিত কাজ, আর এ কটুক্তি করার জন্য ওই ছাত্রকে সাময়িকভাবে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করে কুষ্টিয়ার ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।’

সানবিডি/ঢাকা/রাআ