তাহাদের প্রথম, নাকি লাকি সেভেন

|| প্রকাশ: ২০১৬-০১-২৭ ১৮:২৯:৫৪ || আপডেট: ২০১৬-০১-২৭ ১৮:২৯:৫৪

pori-001শিরোনাম দেখে অনেকের মনে প্রশ্ন জাগতে পারে এটা আবার কি? তাহলে বিষয়টি একটু পরিস্কার করা যাক। ‘তাহাদের প্রথম’ অর্থাৎ প্রথম জুটি। আর ‘লাকি সেভেন’ সেটা ৭ নম্বর ছবি। এবার আরও একটু গভীরে প্রবেশ করা যাক। আগামী শুক্রবার দেশব্যাপী মুক্তি পেতে যাচ্ছে  অপূর্ব-রানা পরিচালিত ‘পুড়ে যায় মন’ ছবিটি। এতে অভিনয় করেছেন সাইমন ও পরীমণি। প্রথমবারের মতো পর্দায় উঠবে এ জুটির কোনো রসায়ন।

যদিও এর আগে নজরুল ইসলাম খানের ‘রানা প্লাজা’ ছবিতে অভিনয় করেছেন তারা। কিন্তু রবীন্দ্রনাথের ছোটগল্পের মতো ‘শেষ হইয়্যাও হইল না শেষ’র মতো অবস্থা হয় ছবিটির। বেশ কয়েকবার বাধা-বিপত্তি পাড়ি দিয়েও চূড়ান্তভাবে আলোর মুখ দেখেনি ছবিটি। নিষেধাজ্ঞার কারণে বন্ধ হয়ে যায় রানা প্লাজার প্রদর্শন। তাহলে বোঝাই যাচ্ছে ‘পুড়ে যায় মন’ হবে তাদের প্রথম রসায়ন। এখন দেখার পালা এ রসায়ন দর্শক হূদয়ে কতটা জায়গা দখল করতে পারে।

অন্যদিকে হালের আলোচিত অভিনেত্রী পরীমণির জন্য এটি হবে মুক্তি পেতে যাওয়া ৭ নম্বর ছবি। গত বছরের মার্চে ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ ছবির মাধ্যমে রূপালী জগতে অভিষেক ঘটে এই অভিনেত্রীর। এর পর একে একে মুক্তি পায় ‘পাগলা দিওয়ানা’, ‘আরো ভালো বাসবো তোমায়’, ‘লাভার নাম্বার ওয়ান’, ‘নগর মাস্তান’ ও ‘মহুয়া সুন্দরী’ ছবিটি। এ ধারাবাহিকতায় আগামী শুক্রবার যোগ হতে যাচ্ছে ‘পুড়ে যায় মন’।

২০১৪ সালে শুরু হয় ছবিটির শুটিং। মূলত ট্র্যাজিক কাহিনীকে কেন্দ্র করেই ঘনিভূত হবে এর চরিত্রগুলো। সব মিলিয়ে একটি ব্যতিক্রম ভালোবাসার গল্প উপহার দেওয়া হয়েছে বলে জানান পরীমণি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ প্রতিদিনকে পরীমণি বলেন, এ ছবিতে আমার অভিনয় আরও পরিপক্ক হয়েছে। বলতে পারেন এটি আমার জন্য একটি ড্রিম প্রজেক্ট।

  pori-002কথায় আছে শুরুটা ভালো হলে সারা বছরই ভালো যাবে। এ বছর অনেক ছবিই মুক্তি পাবে আমার। তাই প্রথম এ ছবিটি নিয়ে প্রত্যাশা অনেক বেশী।  অন্যদিকে সাইমন বলেন, আশা করি ছবিটি দর্শকহৃদয়ে গেঁথে থাকবে। প্রেমের চেয়ে ট্র্যাজিক কাহিনী বেশি দেখানো হয়েছে এতে।

কেউ কেউ মনে করছেন মাহির বিপরীতে আমার ‘পোড়ামন’ ছবির কাহিনীর সঙ্গে এর মিল থাকতে পারে। যা মোটেও ঠিক নয়। পোড়ামন ছবিটি ছিল এক ধাচের আর ‘পুড়ে যায় মন’ সম্পূর্ণ ভিন্নধাচের। সবকিছুতেই রয়েছে স্বকীয়তা। প্রথম দিন দর্শকসারিতে ছবিটি উপভোগ করবেন বলেন জানিয়েছেন সাইমন।

তিনি বলেন, শুক্রবার সকালে যশোরে যাব। মনিহার সিনেমায় ছবিটি উপভোগ করে বিকেলের ফ্লাইটেই ঢাকা ফিরব।  এদিকে সাইমন-পরীর এ রসায়ন কেমন হয় সেটা দেখতে উদগ্রীব ফিল্মপাড়ার লোকজন। কারণ প্রথমবারের মতো এ জুটিকে পর্দায় দেখা যাবে। কেউ কেউ বলছেন এই জুটির উপর নির্ভর করছে তাদের পরবর্তী কাজ। এছাড়া ‘নদীর বুকে চাঁদ’ শিরোনামে আরও একটি ছবির কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে এই জুটির। এখন দেখার পালা প্রেক্ষাগৃহে দর্শকদের ভালোবাসা কতটুকু প্রতিফলিত হয়। যেটাই হোক না কেন এর ফলাফল গিয়ে পড়বে ‘তাহাদের প্রথম অথবা লাকি সেভেন’-এ

সানবিডি/ঢাকা/এসএস