পণ্য নিয়ে ভারতকে হুঁশিয়ারি নেপালের

|| প্রকাশ: ২০১৫-১০-০৫ ১৪:০৮:০৩ || আপডেট: ২০১৫-১০-০৫ ১৪:০৮:০৩

Nepalese policemen face protestors belonging to ethnic and religious groups dissatisfied with Nepal's new constitution adopted on Sunday, in Birgunj, a town bordering India in Nepal, Thursday, Sept. 24, 2015. Nepal’s top political parties on Thursday reached out to protesters angry about the country’s new constitution, after violence in the region bordering India halted more than 1,000 oil tankers and trucks with essential supplies from entering Nepal. (AP Photo/Ram Sarraf)

পেট্রোলিয়াম ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় পণ্যের বাণিজ্যের বিষয়ে প্রয়োজনে চীনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হবে বলে ভারতকে হুঁশিয়ার করেছে নেপাল।

হুঁশিয়ারি দিয়ে ভারতে নিযুক্ত নেপালের রাষ্ট্রদূত দীপকুমার উপাধ্যায় বলেন, ভারত যদি নেপালে পেট্রোলিয়াম ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য রপ্তানি বন্ধ করে তবে তবে চীনের সঙ্গে যোগাযোগের বিষয়ে ভাববে নেপাল।

তিনি বলেন, নতুন সংবিধান অনুমোদনের পর মদেশীয়দের বিক্ষোভের কারণে ১১ দিন ধরে ভারত থেকে নেপালে পণ্য রপ্তানি বন্ধ ছিল। কত দিনে এই সরবরাহ স্বাভাবিক হবে- ভারতের উচিত তা স্পষ্ট করে জানানো। নতুবা ভৌগোলিক অসুবিধা থাকলেও চীনসহ অন্য দেশগুলোর কাছে যেতে হবে নেপালকে। এভাবে একটি দেশকে দেওয়ালের দিকে ঠেলে দেওয়া ঠিক নয়।

ভারতের জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, আজ সোমবার পেট্রোলিয়াম ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য নিয়ে ১০০টি ট্রাক নেপালে প্রবেশ করেছে। এতে দেশটির জনমনে স্বস্তি ফিরেছে।

ভারতের দাবি, মদেশীয় বিক্ষোভে নেপাল পরিস্থিতি উত্তপ্ত থাকায় ১১ দিন ধরে পাঁচটি চেকপোস্টই বন্ধ ছিল। চেকপোস্ট খোলার পরপরই নতুন করে পণ্য সরবরাহ শুরু হয়েছে।

এদিকে নেপালের প্রধানমন্ত্রী সুশীল কৈরালার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন ভারতের রাষ্ট্রদূত রঞ্জিত রাই। দুই দেশের মধ্যে পণ্য সরবরাহ স্বাভাবিক করার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে আশ্বস্ত করেন রঞ্জিত রাই।