পাম অয়েল আমদানি কমেছে ভারতের

সান বিডি ডেস্ক || প্রকাশ: ২০২২-০১-১৩ ১৪:১৩:২৬ || আপডেট: ২০২২-০১-১৩ ১৪:১৩:২৬

বিদায়ী ২০২১ বছরের ডিসেম্বরে ভারতের পাম অয়েল আমদানি ২০২০ সালের একই সময়ের তুলনায় কমেছে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দীর্ঘ সময় ধরেই ঊর্ধ্বমুখী পাম অয়েলের বাজার। তার ওপর ইন্দোনেশিয়া অপরিশোধিত পাম অয়েল রফতানিতে শুল্ক বাড়িয়ে দেয়ায় পণ্যটির দাম আরো বেড়েছে। এ কারণে ভারতের বাজারে অন্য ভোজ্যতেলগুলোর তুলনায় পাম অয়েলের কদর কমেছে। পাম অয়েলের দাম নাগালের বাইরে চলে যাওয়ায় পরিশোধন প্রতিষ্ঠানগুলো বর্তমানে সয়াবিন ও সূর্যমুখী তেল আমদানি বাড়িয়েছে। সম্প্রতি সলভেন্ট এক্সট্রাক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিয়া এক বিবৃতিতে এসব কথা জানিয়েছে।

এই বিবৃতিতে বলা হয়, গত বছরের ডিসেম্বরে ভারত ৫ লাখ ৬৫ হাজার ৯৪৩ টন পাম অয়েল আমদানি করে। ২০২০ সালের একই মাসের তুলনায় আমদানি ২৭ শতাংশ কমেছে। অথচ একই সময়ের তুলনায় সয়াবিন তেল আমদানি বেড়েছে ২২ শতাংশ। ডিসেম্বরে ভারত ৩ লাখ ৯২ হাজার ৪৭১ টন সয়াবিন তেল আমদানি করেছে।

সংস্থাটির তথ্য বলছে, ডিসেম্বরে ভারতের সূর্যমুখী তেল আমদানি ২ লাখ ৫৮ হাজার ৪৪৯ টনে উন্নীত হয়েছে। ২০২০ সালের একই মাসের তুলনায় আমদানি বেড়েছে ১০ শতাংশ। ভারত সাধারণত ইন্দোনেশিয়া ও মালয়েশিয়া থেকেই পাম অয়েল আমদানি করে। সয়াবিন তেল আমদানি করা হয় আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিল থেকে। দেশটি সূর্যমুখী তেল ক্রয় করে রাশিয়া ও ইউক্রেন থেকে।

সানবিডি/এনজে