সরকারকে ভ্যাট দিচ্ছে না ক্যাপ্রিকর্নস লিমিটেড

|| প্রকাশ: ২০১৫-১০-১৩ ১৬:১৩:১৭ || আপডেট: ২০১৫-১০-১৩ ১৮:৩৬:৩১

capricorn-mdক্রেতাদের থেকে ভ্যাটের টাকা নিয়ে তা সরকারি কোষাগারে জমা দিচ্ছে না ক্যাপ্রিকর্ন লিমিটেডের ইস্কাটনের আউটলেট। জাগো নিউজের সরেজমিন অনুসন্ধানে মগবাজারের ইস্কাটন রোডের ক্যাপ্রিকর্ন ওয়ার্ল্ডের আউটলেটটিতে এই চিত্র দেখা গেছে।

শুক্রবার আউটলেট থেকে ৭০ টাকার ‘চকলেট একলেয়ার’ কিনলে একটি রশিদ দেয় প্রতিষ্ঠানটি (ট্রানজেকশন-২০০১৫১০০৯০৭০৩১)। এতে ১০ টাকা ভ্যাট নেয়ার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। তবে রশিদের উপরের দিকে ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন নম্বর ‘০’ (শূন্য) উল্লেখ করা হয়।

রাজস্ব বোর্ডের নির্দেশ অনুযায়ী প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের আলাদা ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন নম্বর থাকা বাধ্যতামূলক। সেই নম্বর অনুযায়ী তারা সরকারি কোষাগারে ভ্যাটের টাকা জমা দেয়। তবে ক্যাপ্রিকর্নের ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন নম্বর ছিল ‘শূন্য’।

এবিষয়ে সন্দেহ হলে জাগো নিউজের পক্ষ থেকে রশিদের ছবি তুলে ঢাকা দক্ষিণের কাস্টমস, এক্সাইজ অ্যান্ড ভ্যাট কমিশনারেটের ফেসবুক পেইজে পাঠানো হয়। (https://www.facebook.com/Customs-Excise-VAT-Commissionerate-Dhaka-North-442811629209959/timeline/)

ফিরতি এসএমএসে কমিশনারেট থেকে জানানো হয়, ‘কোনো প্রতিষ্ঠানের ভ্যাট রেজিস্ট্রেশন নম্বর ‘শূন্য’ হতে পারে না। তারা সরকারি কোষাগারে ভ্যাট জমা দিচ্ছে না।’ এবিষয়ে দক্ষিণ জোনে অভিযোগ দায়ের করার আহ্বান জানান তারা।


এবিষয়ে জানতে চাইলে ঢাকার সেগুনবাগিচা সার্কেলের রাজস্ব কর্মকর্তা শাফায়াত হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, ‘অভিযোগের ভিত্তিতে ইতিমধ্যে ক্যাপ্রিকর্নে কর্মকর্তা পাঠানো হয়েছিল। তারা দাবি করেছে, এমাস থেকে তাদের ইলেকট্রনিক ক্যাশ রেজিস্ট্রার (ইসিআর) মেশিনটিতে ত্রুটির কারণে এঘটনা ঘটেছে। তাদের দাবি যাচাই বাছাই করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে তাদের বকেয়া ভ্যাট জমা দেয়ার বিষয়ে জানানো হয়েছে।’

এবিষয়ে জানতে চাইলে প্রতিষ্ঠানটির ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার শাহাদাৎ হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, আমরা সব আউটলেট থেকে ভ্যাট দেই। লোকসানের কারণে এই আউটলেটটি এমাসে বন্ধ করে দেয়া হবে। তবে ভ্যাট নিয়ে কোনো জটিলতা থাকলে তা পরিশোধ করে দেয়া হবে। এবিষয়ে অ্যাকাউন্ট বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করা হবে।

উল্লেখ্য, রাজধানীতে ক্যাপ্রিকর্ন লিমিটেডের ১৩টি আউটলেট রয়েছে।