শিল্প খাতে বেড়েছে ঋণের চাহিদা

নিজস্ব প্রতিবেদক || প্রকাশ: ২০২২-০৬-২৪ ১৬:২৬:২৪ || আপডেট: ২০২২-০৬-২৪ ১৬:২৬:২৪

দেশে মহামারি করোনার ধাক্কা কাটিয়ে শিল্প-কলকারখানার চাকাও ঘুরছে আগের মতো। এতে দেশের অর্থনীতিও ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। অর্থনৈতিক অগ্রগতির সঙ্গে শিল্প খাতে প্রান্তিক ঋণের প্রবৃদ্ধিও বেড়েছে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বলছে, চলতি বছরের মার্চ প্রান্তিক (জানুয়ারি-মার্চ) শেষে দেশের শিল্প খাতে মোট ঋণ বিতরণ হয়েছে এক লাখ ২৭ হাজার ৬৭১ কোটি টাকা।

গত ২০২১ সালের একই সময়ে (মার্চ প্রান্তিক) ঋণ বিতরণ হয়েছিল ৯০ হাজার ৯৬৬ কোটি টাকা। সে হিসাবে গত বছরের একই সময়ের তুলনায় শিল্প খাতে ঋণের বিতরণ বেড়েছে ৩৬ হাজার ৭০৫ কোটি টাকা।

২০২১ সালের ডিসেম্বর প্রান্তিকে শিল্প খাতে ঋণ বিতরণ হয়েছিল এক লাখ ২৪ হাজার ৮৬৫ কোটি টাকা। সে হিসাবে তিন মাস ব্যবধানে ঋণ বিতরণ বেড়েছে দুই হাজার ৮০৬ কোটি টাকা, যা এক বছরের ব্যবধানে শতকরা হিসাবে ৩৩.৭৫ শতাংশ বৃদ্ধি।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, গত বছরের মার্চে করোনার প্রভাব থাকায় শিল্প-কারখানা অনেকটা বন্ধ ছিল। তবে সরকারের দেওয়া বিভিন্ন বিশেষ প্রণোদনার ঋণপ্রবাহ বাড়ায় সার্বিক পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়েছে। তবে সামগ্রিকভাবে বেসরকারি খাতের ঋণ বিতরণও কিছুটা বেড়েছে।

তাঁরা বলছেন, দেশের আমদানি-রপ্তানি দুটিই বেড়ে যাওয়ায় শিল্প-কারখানাগুলো উৎপাদন বাড়িয়ে দিয়েছে। এ ছাড়া বিশ্ববাজারে পণ্যের দাম বৃদ্ধির কারণে মূলধনী যন্ত্রপাতি কিনতে বেশি টাকা ব্যয় করতে হচ্ছে, যার কারণে বেশি পরিমাণে ঋণ নিচ্ছে। ফলে দেশের মোট আমদানি বেড়েছে।

সানবিডি/এনজে