৫ লাখ ২০ হাজার টন সার কিনবে সরকার

সান বিডি ডেস্ক || প্রকাশ: ২০২২-০৮-০৩ ২০:১৬:৩৪ || আপডেট: ২০২২-০৮-০৩ ২০:১৬:৩৪

সৌদি আরব ও কাফকো থেকে ৬০ হাজার মেট্রিক টন ইউরিয়া সার কিনবে সরকার। এজন্য ব্যয় হবে ৩১৫ কোটি ৪৭ লাখ ৪৮ হাজার ১০০ টাকা। একই সঙ্গে ৩ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিক টন ইউরিয়া এবং ১ লাখ মেট্রিক টন এমওপি সারও কেনা হচ্ছে। সবমিলিয়ে ৫ লাখ ২০ হাজার মেট্রিক টন সার কিনছে সরকার।

বুধবার (৩ আগস্ট) দুপুরে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে নীতিগত এ অনুমোদন দেয়া হয়।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুল বারিক এসব তথ্য জানান। তিনি বলেন, অর্থনৈতিক বিষয়ক সংক্রান্ত কমিটির অনুমোদনের জন্য ২টি এবং ক্রয় কমিটির অনুমোদনের জন্য ৩টি প্রস্তাব উপস্থাপন করা হয়। এর মধ্যে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ১টি এবং শিল্প মন্ত্রণালয়ের ২টি প্রস্তাবনা ছিল।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, ক্রয় কমিটির অনুমোদিত ৩টি প্রস্তাবের মোট অর্থের পরিমাণ ৭৬৪ কোটি ৩০ লাখ ১২ হাজার ১০০ টাকা। এর মধ্যে জিওবি (সরকারি অর্থ) থেকে ব্যয় হবে ৪৪৮ কোটি ৮২ লাখ ৬৪ হাজার টাকা। আর দেশীয় ব্যাংকগুলো থেকে ৩১৫ কোটি ৪৭ লাখ ৪৮ হাজার ১০০ টাকা ঋণ নেয়া হবে।

আব্দুল বারিক বলেন, কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড (কাফকো) বাংলাদেশ থেকে দ্বিতীয় ধাপে ৩০ হাজার মেট্রিক টন গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার কেনা হবে। ১৫৭ কোটি ৩২ লাখ ৭ হাজার ৫০০ টাকায় তা ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) এ সার কিনবে।

তিনি বলেন, এছাড়া সৌদি আরবের এসএবিআইসি এগ্রি-নিউট্রিয়েন্টস কোম্পানি থেকে তৃতীয় ধাপে ৩০ হাজার মেট্রিক টন বাল্ক গ্র্যানুলার ইউরিয়া সার কেনা হবে। ১৫৮ কোটি ১৫ লাখ ৪০ হাজার ৬০০ টাকায় যা ক্রয়ের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে চুক্তির মাধ্যমে ফার্টিগ্লোব ডিস্ট্রিবিউশন লিমিটেড সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং কাতার থেকে ৩ লাখ ৬০ হাজার মেট্রিক টন ইউরিয়া সার আমদানি করা হবে। বিসিআইসি কর্তৃক তা কিনতে চুক্তি সইয়ের নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, সরাসরি চুক্তির আওতায় দুবাইভিত্তিক প্রতিষ্ঠান ফ্যালকো জেনারেল ট্রেডিং এলএলসি থেকে ১ লাখ মেট্রিক টন এমওপি সার আমদানি করা হবে। বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি) তা কিনবে। এজন্য নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

এএ