‘প্রধানমন্ত্রীর চায়ের দাওয়াত পেয়ে ধন্যবাদ দিতে পারতো বিএনপি’

জেলা প্রতিনিধি || প্রকাশ: ২০২২-০৮-০৪ ২০:০৮:৫০ || আপডেট: ২০২২-০৮-০৪ ২০:০৮:৫০

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া চায়ের দাওয়াতকে বিএনপি তামাশা হিসেবে দেখেছে। অথচ বিষয়টি সন্তোষ জনক ছিল। সেক্ষেত্রে বিএনপি ধন্যবাদ দিয়ে বলতে পারতেন এখন চা খাওয়ার সময় নেই।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) রংপুরের সেন্ট্রাল রোডের বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময়ে এসব কথা বলেছেন তিনি।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপির আন্দোলন যেন সহিংসতায় রূপ না নেয় বিএনপির আন্দোলন যেন ধ্বংসাত্মক না হয়, মানুষের সম্পদ ও প্রাণহাণি না ঘটে। ঢিল ছোড়া, পুলিশকে উত্ত্যক্ত করা, আক্রমণ করা বিএনপির গণতান্ত্রীক আন্দোলন হতে পারে না। বিএনপি ধ্বংসাত্মক আন্দোলন পরিহার করে শান্তিপূর্ণ আন্দোলন করলে সরকার স্বাগত জানাবে বিএনপিকে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, নিত্যপণ্যের বাজার স্বাভাবিক রাখতে সরকার এক কোটি মানুষকে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে খাদ্যসামগ্রী সহায়তা করছে। এ কার্ডে কোনো অসঙ্গতি থাকলে তা খতিয়ে দেখা হবে। শহর থেকে গ্রাম-গঞ্জে তেল, চিনি, ডালের দাম সরকার নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি দামে বিক্রির প্রমাণ পেলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার হুসিয়ারী দেন।

তিনি আরও বলেন, পৃথিবীজুড়ে জিনিসপত্রের দাম বেড়েছে। প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান ছিল সবাইকে সাশ্রয়ী হওয়ার। দ্রুত এই সমস্যা নিরসন হবে। আমাদের পণ্য আমদানি করতে ডলার খরচ হচ্ছে। তাই ডলারের ওপর চাপ পড়ছে। সেইসঙ্গে ডলারের একটু ক্রাইসিস তো আছেই। আমরা একটু সাশ্রয়ী হই কম খরচ করি। বৈশ্বিক এই সংকট সকলকে মিলে মোকাবিলা করতে হবে।

এম জি