হতদরিদ্রদের ৫৩ লাখ টাকার অনুদান দিল বাংলাদেশ ব্যাংক

|| প্রকাশ: ২০১৫-১০-১৭ ১৯:৪৮:০৭ || আপডেট: ২০১৫-১০-১৭ ১৯:৪৮:০৭

bangladesh-bank-logoবাংলাদেশ ব্যাংকের সামাজিক দায়বদ্ধতা (সিএসআর) কার্যক্রমের অংশ হিসেবে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলার ২১২টি হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে ২৫ হাজার করে মোট ৫৩ লাখ টাকার অনুদান দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সিএসআর প্রকল্পের আওতায় ‘দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিল’ থেকে এ অনুদান দেওয়া হয়।

শনিবার গোলাপগঞ্জ জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এবং জনতা ব্যাংক লিমিটেডের সহযোগিতায় এক অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ বাংকের গভর্নর ড.আতিউর রহমান দরিদ্র জনগোষ্ঠীর মাঝে অনুদানের চেক হস্তান্তর করেন।

অনুষ্ঠানে গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. খলিলুর রহমান, টুঙ্গিপাড়ার মেয়র ও উপজেলা চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক মাহফুজুর রহমানসহ অন্য কর্মকর্তা এবং স্থানীয় ব্যাংক শাখার কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর বলেন, দেশের টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে সিএসআর খাতে আরও ব্যাপক কার্যক্রম গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ পেক্ষাপটে গত বছর থেকে ‘বাংলাদেশ ব্যাংক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিল’ নামে একটি সিএসআর তহবিল চালু করা হয়। বাংলাদেশ ব্যাংকের মুনাফা থেকে প্রতিবছর ১০ কোটি টাকা এ তহবিলে জমা করা হয়।

তিনি বলেন, এ তহবিল থেকে এ পর্যন্ত শিক্ষা, স্বাস্থ্য, মানবসম্পদ উন্নয়ন, পরিবেশ ও বন্য প্রাণী সংরক্ষণ, মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর নির্মাণ, ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিট ও ফায়ার সার্ভিসের মতো সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানের সক্ষমতা, প্রাযুক্তিক ও দক্ষতা উন্নয়ন, প্রবীণদের সক্ষমতা অর্জন, প্রতিবন্ধী পুনর্বাসন, বীরাঙ্গনাদের স্বার্থ সংরক্ষণ ও অশ্রুমোচন এবং দেশের টেকসইআর্থসামাজিক উন্নয়ন কর্মসূচি বিষয়ক প্রকল্পের অনুকূলে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়।

সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর সামাজিক দায়বদ্ধতা কার্যক্রম অনেক বেড়েছে উল্লেখ করে গভর্নর বলেন, গত ছয় বছরে ব্যাংকিং খাতে সিএসআর ব্যয় প্রায় ১০ গুণ বেড়েছে। বর্তমানে এর পরিমাণ প্রায় ৫১১ কোটি টাকা। দেশের দরিদ্র ও সুবিধাবঞ্চিত জনসাধারণের জীবনযাত্রার মান ও আর্থসামাজিক উন্নয়ন এবং প্রাকৃতিক ও আকস্মিক দুর্যোগ মোকাবেলায় এ কার্যক্রমকে দেশব্যাপী বিস্তৃত করা হবে বলে জানান আতিউর রহমান।

বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক অন্তর্ভুক্তিমূলক কর্মসূচিগুলো নিজ দেশে চালু করার জন্য এরই মধ্যে অনেক দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কর্মকর্তা বাংলাদেশ সফর করেছেন জানিয়ে গভর্নর জানান, আগামী মাসে জাতিসংঘ মহাসচিবের উপদেষ্টা নেদারল্যান্ডের কুইন ম্যাক্সিমা বাংলাদেশ ব্যাংকের অন্তর্ভুক্তিমূলক কর্মকাণ্ড দেখতে বাংলাদেশে সফরে আসার জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

অনুষ্ঠান শেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও মাজার জিয়ারত করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমানসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।