কাঁদলেন ও কাঁদালেন রাজনের বাবা

প্রকাশ: ২০১৫-১০-২৭ ১৮:১৬:০৪

untit_88413ছেলের হত্যা মামলার রায়ের তারিখ ঘোষণা হওয়ার পরপরই কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন শিশু সামিউল আলম রাজনের বাবা শেখ আজিজুর রহমান। তার কান্নায় মূহূর্তেই ভারী হয়ে উঠে আদালত চত্বর। স্বজনসহ উপস্থিত অনেককেই এ সময় তাকে শান্তনা দিতে দেখা যায়। রাজন হত্যা মামলার রায় ৮ নভেম্বর ঘোষিত হবে।

আজ মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটায় মহানগর দায়রা জজ আকবর হোসেন মৃধা রায়ের তারিখ নির্ধারণ করেন।

আইনজীবীদের মুখে রায়ের তারিখ শোনার পরই কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন শেখ আজিজুর রহমান। আদালতের বারান্দায় বসে পড়ে হাউমাউ করে কান্না শুরু করেন তিনি। রাজনের বাবার কান্না দেখে উপস্থিত অনেককেও এসময় চোখ মুছতে দেখা যায়।

আজিজুর রহমানের বড় ছেলে রাজন। গত ৮ জুলাই চোর অপবাদ দিয়ে বর্বরোচিত নির্যাতনের মাধ্যমে তাকে হত্যা করা হয়। রায়ের তারিখ ঘোষণার পর শেখ আজিজুর রহমান কান্নাজড়িত কণ্ঠে ছেলের হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন।

সানবিডি/ঢাকা/রাআ

Print Print