গ্রিসে নৌকা ডুবে ৭ শরণার্থী শিশুর মৃত্যু

|| প্রকাশ: ২০১৫-১০-২৯ ১২:২৭:২৩ || আপডেট: ২০১৫-১০-২৯ ১২:৫৬:৫৫

Greesগ্রিসের উপকূলে বুধবার অভিবাসনপ্রত্যাশীদের বহনকারী চারটি নৌকা ডুবে গেলে কমপক্ষে ১১ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এদের  সাতজনই শিশু। শরণার্থীদের বহনকারী নৌকাগুলো তুরস্ক থেকে গ্রিস যাওয়ার সময় আজিয়ান সাগরে লেসবস দ্বীপের কাছে ডুবে যায়। এসব শরণার্থীরা গ্রিস হয়ে ইউরোপ পৌঁছানোর জন্য তুরস্ক থেকে যাত্রা করেছিলেন বলে এএফপি জানিয়েছে।

আজিয়ান সাগরে তুর্কি উপকূল থেকে লেসবস দ্বীপটি মাত্র ১০ কিলোমিটার দূরে উত্তরে অবস্থিত।

দুর্ঘটনার পরপরই উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে গ্রিসের উপকূলীয় রক্ষীরা। তারা এ পর্যন্ত ২৪২ জনকে উদ্ধার করে লেসবস দ্বীপে নিয়ে গেছে। উদ্ধার তৎপরতা এখনো চলছে। উদ্ধারকৃত অধিকাংশই মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন বলে জানা গেছে। এছাড়া অনেক শিশু সংজ্ঞাহীন অবস্থায় রয়েছে। তাদের সারিয়ে তোলার চেষ্টা চালাচ্ছেন চিকিৎসকরা। তবে একবছর বয়সী এক শিশুর অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে।

তাৎক্ষণিকভাবে দুর্ঘটনার কারণ জানা যায়নি। তবে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে নৌকাগুলো ডুবে গিয়ে থাকতে পারে। এছাড়া ওই দুর্ঘটনার সময় নৌকাটিতে কতজন যাত্রী ছিল তারও কোনো হিসেব পাওয়া যায়নি।

এ নিয়ে চলতি মাসে গ্রিসে পৌঁছাতে গিয়ে ৩৯ জন প্রাণ হারাল। গ্রিসের বন্দর পুলিশের দেয়া তথ্যের ওপর ভিত্তি করে নিহতদের এ সংখ্যা জানিয়েছে এএফপি।

ইন্টারন্যাশনাল অফিস ফর মাইগ্রেশন(আইওএম)’য়ের হিসেব মতে, চলতি বছর এজিয়ান সাগর পাড়ি দিয়ে এ পর্যন্ত ৫ লাখ ৬০ হাজার শরণার্থী গ্রিস পৌঁছেছে। ভূমধ্যসাগর হয়ে ইউরোপে পৌঁছেছে আরো ৭ লাখ  শরণার্থী। বিপজ্জনকভাবে সাগর পাড়ি দিতে গিয়ে মারা গেছে ৩২শ’র বেশি মানুষ।

সানবিডি/ঢাকা/এসএস