এ দেশে ধর্মনিরপেক্ষ না হওয়াই বড় অপরাধ: শাহরুখ

|| প্রকাশ: ২০১৫-১১-০২ ১৫:০৯:৫৯ || আপডেট: ২০১৫-১১-০২ ১৫:০৯:৫৯

Sharukh Kha 1তাঁর জন্মদিনে দেশজোড়া ফ্যানরা সেলিব্রেশনের মুডে৷ কিন্তু তিনি চিন্তিত দেশজুড়ে ক্রমাগত বাড়তে থাকা অসহিষ্ণুতা নিয়ে৷ সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বলি-বাদশা জানালেন, দেশে এখন অসহিষ্ণুতা চরম পর্যায়ে পৌঁছেছে৷

সাম্প্রতিক অতীতে এই অসহিষ্ণুতা নিয়ে বার বার সরব হয়েছেন শিল্পী ও সাহিত্যিকরা৷ কেউ কেউ ফিরিয়ে দিয়েছেন তাঁদের পুরস্কার৷ কেউ আবার তা নিয়ে সমালোচনাও করেছেন৷ বিভাজনের রাজনীতি রুখতে গিয়ে শিল্পীমহলেই পড়েছে বিভাজনের ছায়া৷ প্রথম সারির অনেক শিল্পীই এই বিষয়ে সরব হলেও, এতদিন  এ বিষয়ে মুখ খোলেননি বলিউডের তিন খানের কেউই৷

ভারতীয় সিনেমার পরিমণ্ডলে সুপারস্টার হিসেবে তাঁদের মতামতের প্রভাব যে অনেকখানি, সে কথা জানেন তাঁরাও৷ তাই  এবার অসিষ্ণুতা নিয়ে সরব হলেন শাহরুখ৷ জানালেন দেশে অসহিষ্ণুতা এখন চরমে পৌঁছেছে৷ কিং খানের মতে, দেশপ্রেমিক হিসেবে ধর্মনিরপেক্ষ না হওয়াই  এ দেশে সবথেকে ঘৃণ্য ‘ক্রাইম’৷

 বহু শিল্পী-সাহিত্যিক-পরিচালক-বিজ্ঞানীরা তাঁদের পুরস্কার ফিরিয়ে দিয়েছেন এই ইস্যুতে৷ শাহরুখ নিজে যদিও এখনও কোনও পুরস্কার ফেরত দেননি, তবে তিনি জানিয়েছেন, পুরস্কার ফিরিয়ে দেওয়ার প্রয়াস নিঃসন্দেহে সৎ ও আন্তরিক৷ অনেক কিছু বলার থাকলেও ‘স্টার’ হয়ে তিনি বলতে পারেননি বলেও জানান কিং খান৷ বলেন, ‘বাক স্বাধীনতা নিয়ে অনেকে কথা বলেন৷ এখন আমার বাড়ির সামনে এসে অনেকে পাথর ছোঁড়েন৷ আমাকে তাহলে তাদের পাশেও দাঁড়াতে হয়৷’’

তবে দেশের এই পরিস্থিতিতে নিজের সুপারস্টারডম মাথায় নিয়েও অসহিষ্ণুতা নিয়ে মুখ খুললেন তিনি৷

সানবিডি/ঢাকা/এসএস