ব্যাভিচারের দায়ে আফগান তরুণীকে পাথর ছুড়ে হত্যা

|| প্রকাশ: ২০১৫-১১-০৪ ১২:৫৬:৫৪ || আপডেট: ২০১৫-১১-০৪ ১২:৫৬:৫৪

Toruniআফগানিস্তানে সম্প্রতি ব্যভিচারের অভিযোগে এক নারীকে পাথর ছুড়ে হত্যা করা হয়েছে। দেশটির সামজিক মাধ্যমগুলোতে ওই হত্যার ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর টনক নড়েছে স্থানীয় প্রশাসনের।

৩০ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যায়, ওই তরুণীকে একটি গভীর গর্তে রেখে অনবরত পাথর ছুড়ছেন কয়েকজন পাগড়ি পড়া পুরুষ। মেয়েটি বাঁচার জন্য ক্রমাগত চিৎকার করে চলেছেন। কিন্ত তার আর্তনাদে কারো মন গলেনি।

ওই তরুণীর নাম রোখসানা। আনুমানিক বয়স ১৯ থেকে ২১। স্থানীয় সংবাদ সংস্থা ‘দা টোলো’ বলছে, প্রায় এক সপ্তাহ আগে মধ্য ঘোর প্রদেশের রাজধানী ফিরোজকোহ’র বাইরে এ হত্যাকাণ্ড হয়েছিল।

নিষ্ঠুর হত্যাকারীরা ওই তরুণীকে কেবল পাথর ছুড়েই ক্ষান্ত হয়নি। তারা মোবাইলে তার বাঁচার আকুতি ভিডিও করে ফেসবুকেও ছড়িয়ে দিয়েছে। এ ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর আফগান প্রশাসন বরাবরের মতই এই পাশবিক হত্যাকাণ্ডের জন্য তালেবান জঙ্গিদের দায়ী করেছে।

ঘোর প্রদেশের নারী গভর্নর সেমা জয়েন্দা এএফপি’কে বলেছেন- তালেবান, স্থানীয় ধর্মীয় নেতা এবং সশস্ত্র যুদ্ধবাজরা মিলে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। তিনি আরো জানান, রোখসানার ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিয়ে ঠিক করেছিল তার পরিবার। কিন্তু তার প্রেম ছিল স্থানীয় এক যুবকের সঙ্গে। তাদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্কও তৈরি হয়েছিল। এ অপরাধেই তাকে পাথর ছুড়ে হত্যা করেছে ধর্মান্ধরা। তবে তার প্রেমিককে কেবল দোররা মেরেই রেহাই দেয়া হয়েছে।

এর আগে গত মার্চে কাবুলে কুরআন পোড়ানোর অভিযোগে আরো এক নারীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছিল। ওই হত্যার প্রতিবাদে তখন গোটা আফগানিস্তান জুড়ে ব্যাপক বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছিল।