এবার জেলখানার অতন্দ্র প্রহরী হবে ‘কুমির’

|| প্রকাশ: ২০১৫-১১-১৪ ১৭:২৩:২৮ || আপডেট: ২০১৫-১১-১৪ ১৭:২৩:২৮

kumir-655x360ইন্দোনেশিয়ায় মাদক বিক্রি কিংবা চোরাচালানের দায়ে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিতদের জন্যে একটি গোটা দ্বীপে জেলে বানিয়ে তা কুমির দিয়ে পাহারা দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। আর এই প্রস্তাব করেছেন দেশের অন্যতম মাদক বিরোধী সংস্থার প্রধান বুদি ওয়াসেসো। তিনি জানিয়েছেন, অনেক সময় কুমির মানুষের চেয়ে ভালোভাবে পাহারা দিতে পারে, কারণ এদেরকে ঘুষ দেওয়া যায় না। তিনি আরও বলেন, সবচেয়ে মারাত্মক কুমির খুঁজে বের করতে তিনি বিভিন্ন এলাকায় সফর করবেন।
প্রসঙ্গত, পৃথিবীর যেসব দেশে খুব কঠোর মাদক বিরোধী আইন রয়েছে, ইন্দোনেশিয়া তার মধ্যে একটি। দেশটিতে মাদক সংক্রান্ত মামলায় চার বছর ধরে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা বন্ধ থাকলেও ২০১৩ সালে এই বিধি-নিষেধ প্রত্যাহার করা হয়। ওয়াসেসো ইন্দোনেশিয়ার একটি স্থানীয় ওয়েবসাইটকে জানিয়েছেন, একটি দ্বীপ-কারাগার বানানোর পর আমরা যত বেশী সম্ভব কুমির সেখানে রাখবো। কুমিরকে ঘুষ দেওয়া যায়না। ফলে বন্দিরাও পালাতে পারবে না সহজে। দ্বীপ-কারাগার বানানোর পরিকল্পনাটি অবশ্য এখনো খুবই প্রাথমিক অবস্থায় আছে। কোথায় এটি হবে বা কবে এটি খুলে দেওয়া হতে পারে তা এখনও ঠিক করা হয়নি।