সাক্ষাৎ চায় মুজাহিদের পরিবারও

|| প্রকাশ: ২০১৫-১১-১৯ ১২:১৬:৪৭ || আপডেট: ২০১৫-১১-১৯ ১২:১৬:৪৭

Mujahid. Familyএকাত্তরে মানবতা বিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে চান তার পরিবার। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আরেক মানবতাবিরোধী অপরাধী সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর পরিবার দেখা করার অনুমতি পাওয়ার পর তারাও আবেদন করেছেন।

বৃস্পতিবার সকালে ১২টার দিকে সাক্ষাতের আবেদন করেন বলে জানিয়েছেন আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদের  ছেলে আলী আহমেদ মাবরুর।

তিনি বলেন, ‘বাবার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে আমরা কারাকর্তৃপক্ষের কাছে একটি আবদেন করেছি। যদি কারাকর্তৃপক্ষ সাক্ষাতের অনুমতি দেয় তাহলে আমরা পরিবারের সব সদস্যরা বাবার সঙ্গে দেখা করার জন্য কারাগারে যাবো।’

মাবরুর বলেন, ‘শুনেছি সালাউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরীর পরিবার আবেদন করেছেন এবং তারা দেখা করার অনুমতিও পেয়েছেন। তাই আমরা আবেদন করলাম।’

২০১৩ সালের ১৭ জুলাই আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-২ মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মুজাহিদকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার আদেশ দিয়েছিলেন। ওই রায় চ্যালেঞ্জ করে মুজাহিদের আইনজীবীরা সর্বোচ্চ আদালতে গেলে সর্বোচ্চ আদালতও ট্রাইব্যুনালের রায় বহাল রাখেন। তবে প্রসিকিউশনের আনা সাতটি অভিযোগের মধ্যে ট্রাইব্যুনাল তাকে তিনটিতে মৃত্যুদণ্ড দিলেও আপিল বিভাগ শুধুমাত্র ষষ্ঠ অভিযোগে অর্থাৎ বুদ্ধিজীবী হত্যার দায়ে ট্রাইব্যুনালের রায় বহাল রাখেন।

৩০ সেপ্টেম্বর সর্বোচ্চ আদালতের এই রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশের পর দণ্ড থেকে বাঁচতে মুজাহিদের সামনে খোলা ছিল রায় পুনর্বিবেচনার আবেদনের পথ। তাও গতকাল বন্ধ হয়ে যায় আপিল বিভাগের রায়ে। এখন রাষ্ট্রপতির ক্ষমাই তাদের বাঁচার একমাত্র পথ।