পরবর্তী আইফোন হবে পানিরোধক

প্রকাশ: ২০১৫-১১-২৫ ১১:৪০:০৭ আপডেট: ২০১৫-১১-২৫ ১১:৪০:০৭

iPhone-7-নতুন স্মার্টফোন বাজারে আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক টেক জায়ান্ট প্রতিষ্ঠান অ্যাপল। ট্রেন্ডফোর্স নামক গবেষণা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, খুব শিগগির বাজারে আসবে অ্যাপনের নতুন আইফোন ৭ ও আইফোন ৭ প্লাস। এই ডিভাইস ২টি তৈরিতে পানিরোধক প্রযুক্তি ব্যবহার করবে এর উৎপাদক প্রতিষ্ঠান অ্যাপল।

ওই গবেষণা প্রতিষ্ঠানের প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়েছে, আইফোন ৭ ও আইফোন ৭ প্লাস স্মার্টফোন ২টিতে থাকবে ৩ জিবি র‌্যাম। আর আগের ফিচারগুলোর পাশাপাশি বেশকিছু নতুন ফিচারও যুক্ত হচ্ছে এই ডিভাইসগুলোতে।

সম্প্রতি বেশকিছু প্রযুক্তি বিষয়ক সংবাদ মাধ্যমের বিভিন্ন প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, অ্যাপলের পরবর্তী আইফোনে আই-ট্র্যাকিং সফটওয়্যার থাকবে। এই সফটওয়্যারের ফলে চোখের ইশারায় চলবে ডিভাইস। সম্প্রতি এমনই এক পেটেন্ট করেছে মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি। আই-ট্র্যাকিং সফটওয়্যার ছাড়াও আইফোনের ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরকে আরও কার্যকর করতে প্যানিক বাটন নামের বিশেষ প্রযুক্তি ব্যবহারের পেটেন্টও করেছে অ্যাপল।

পিপার জাফ্রের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও গবেষক গিনি মানস্টার জানান, পরবর্তী আইফোনের ডিজাইনে পরিবর্তন আনার পরিকল্পনা করছে অ্যাপল। ডিভাইসটির গোলাকার হোম বাটন তুলে দেয়াটাই হতে পারে নতুন এই পরিবর্তন।

তিনি জানান, থ্রিডি টাচ সমৃদ্ধ আইফোনের স্ক্রিনে চাপ দিলে বাড়তি কাজ করার জন্য অপশন পাওয়া যায়। সেজন্য গোলাকার হোম বাটন উঠিয়ে দিলেও কোনো সমস্যা হবে না, বরং আকার বৃদ্ধি পাবে। আর সেজন্য হোম বাটন উঠিয়ে দিতে পারে প্রতিষ্ঠানটি।

প্রসঙ্গত, আইফোন ব্যবহারকারীদের অনেকেই দীর্ঘদিন ধরে তাদের ডিভাইসকে পানিরোধক বলে দাবি করলেও সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে, আইফোন ৬ এবং আইফোন ৫ ডিভাইসগুলোতে পানিরোধক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়নি।

সম্প্রতি সিএনএন পরিচালিত এক পরীক্ষায় দেখা গেছে, আইফোন ৬ এর একটি ডিভাইস টানা ৫ মিনিট পানিতে চুবিয়ে রাখার পর যখন সেটি নেওয়ার পর দেখা গেছে, এর অনেক কিছুই আর কাজ করছে না। এমনকি ওই ফোনে থাকা গানগুলোও বাজানো সম্ভব হয়নি।

একইভাবে সম্প্রতি আইফোন ৫ এস এও পরীক্ষা চালিয়েছে গেজেট ইনস্যুরেন্স কোম্পানি প্রোটেক্স ইউর বাবল। সেখানেও দেখা গেছে, অ্যাকুইরিয়ামের পানিতে ডুবানোর ১০ সেকেন্ড পর কাজ বন্ধ করে দেয় স্মার্টফোন। কোম্পানিটির আইফোন ৬ এস পরীক্ষায় দেখা গেছে পানির নিচে ৪৫ মিনিট ধরে কাজ চলছিল। তাদের ধারণা, স্মার্টফোনটি স্থানভেদে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য দিচ্ছে।