শেষ হলো দুই দিনব্যাপী হালকা প্রকৌশল বাণিজ্য মেলা

সান বিডি ডেস্ক || প্রকাশ: ২০২০-০২-১২ ১৬:২৭:০৭ || আপডেট: ২০২০-০২-১২ ১৬:২৭:০৭

দেশের সম্ভাবনাময় যুবশক্তির কার্যকর কর্মসংস্থানের জন্য হালকা প্রকৌশলকে খাতকে গুরুত্ব দিয়ে অনুষ্ঠিত হলো ‘হালকা প্রকৌশল শিল্পপণ্য প্রদর্শনী ২০২০’ শীর্ষক দুই দিনের বাণিজ্য মেলা।গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত এ মেলার শেষ দিনে বিশেষজ্ঞরা হালকা প্রকৌশল খাতকে গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলেন।

বক্তারা বলেছেন, বর্তমান ও ভবিষ্যৎ বাজার চাহিদাকে সামনে রেখে তাঁদের দক্ষতা উন্নয়ন, উদ্যোক্তাদের অর্থায়নের পথ সুগম করা, খাতটির প্রবৃদ্ধি নিশ্চিত করার জন্য সরকারি-বেসরকারিসহ সব অংশীদারের সমন্বিত সহযোগিতা বাড়ানো এবং এই খাতের বৈচিত্র্যকরণ নিশ্চিতে কাজ করতে হবে।

ব্র্যাকের দক্ষতা উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় বাস্তবায়িত ‘প্রোগ্রেস’ প্রকল্পের পক্ষ থেকে মেলাটি আয়োজন করা হয়। আয়োজকেরা জানান, দুই দিনের মেলায় অংশগ্রহণকারী উদ্যোক্তারা ১ কোটি ৯৭ লাখ টাকার কার্যাদেশ পেয়েছেন। ৪১ জেলা থেকে ৫৮টি ব্যবসা উদ্যোগ হালকা প্রকৌশল বাণিজ্য মেলায় অংশ নেয়।

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগবিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান গত সোমবার মেলা উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে তিনি ব্র্যাকের নারীবান্ধব কর্মকৌশলের প্রশংসা করেন।

সালমান এফ রহমান বলেন, ‘রপ্তানিমুখী তৈরি পোশাকের ওপর অতিরিক্ত নির্ভরতা আমাদের অর্থনীতির বড় দুর্বলতা, যা কাটিয়ে উঠতে আমাদের রপ্তানিপণ্যের ক্ষেত্রে বৈচিত্র্য আনতে হবে। এ ক্ষেত্রে হালকা প্রকৌশল খাত নিয়ামক ভূমিকা রাখতে পারে।’

শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল হালিম গতকাল আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তরুণ-যুবশক্তিকে উৎপাদনশীল খাতে সম্পৃক্ত করার ওপর জোর দিয়ে বলেন, অর্থনীতিকে গতিশীল করতে হলে তরুণদের উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে হবে।

মেলার শেষ দিনের আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ব্র্যাকের দক্ষতা উন্নয়ন কর্মসূচির পরিচালক অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আফতাব উদ্দীন আহমেদ।

প্রোগ্রেস প্রকল্পের একটি জরিপে দেখা গেছে, প্রকল্পটিতে অংশগ্রহণের মাধ্যমে উদ্যোক্তাদের উৎপাদনশীলতা ২৯ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। ৫০০ জন উদ্যোগ শুরুর প্রশিক্ষণ ও অন্যান্য সহায়তা পেয়েছেন। এর মধ্যে ২২৩ জন নারী। বিজ্ঞপ্তি