সাইকেলে লাশ বহন করে সৎকারে নিয়ে গেলেন বৃদ্ধ ভাই

প্রকাশ: ২০১৫-১২-০৩ ২৩:২২:৪৮ আপডেট: ২০১৫-১২-০৩ ২৩:২৪:৫২

নাট্যকার সেলিম আল দীনের লেখা আর মোরশেদুল ইসলাম নির্মিত ‘চাকা’ চলচ্চিত্র যারা দেখেছেন, তাদের মনে থাকার কথা- লাশ নিয়ে গরুর গাড়ীতে করে অন্তহীন ছুটে চলা। সমাজের চিত্রই ফুটে ওঠে চলচ্চিত্রে। আবার চলচ্চিত্রের গল্প কখনো কখনো বাস্তবে ঘটে যায় নির্দয়ভাবে। ‘চাকা’র সেই ঘটনার বাস্তব চিত্র চোখে পড়লো ভারতের হায়দারাবাদে। তবে এটি গরুর গাড়ীতে করে নয় সাইকেলে করে লাশ বহন করে নিয়ে গেলেন বৃদ্ধ ভাই।
নেল্লোরে আসার পর থেকে কম্বল বিক্রি করে, একটি ভাড়ার বাড়িতে থেকে কোনোক্রমে দিন কাটত দুই ভাইয়ের। হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে পড়েন কেম্পু রাজু। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করলেও বাঁচানো সম্ভব হয়নি। ভাইয়ের মৃতদেহ ভাড়ার বাড়িতে নিয়ে আসতে চান গোবিন্দ। কিন্তু, বাধ সাধেন বাড়ির মালিক। অনুমতি দেননি। বাধ্য হয়ে এক বাসস্ট্যান্ডেই ভাইয়ের মৃতদেহ নিয়ে আশ্রয় নেন। অসহায় অবস্থায় আশা এটুকুই ছিল, কেউ এগিয়ে এসে কবরস্থান পর্যন্ত দেহ নিয়ে যেতে সাহায্য করবে। কিন্তু, সে আশাও পূরণ হয়নি। এগিয়ে আসেনি কেউ।
ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষার পরও ন্যূনতম সাহায্য না পেয়ে ভাইয়ের মৃতদেহ সঙ্গে নিয়ে নিজেই রওনা দেন গোবিন্দ। সঙ্গী সাইকেল। তাতে করে কোনও রকমে ভাইয়ের মৃতদেহ বয়ে কবরস্থানে নিয়ে গিয়ে কবর দেন। মনে করিয়ে দেন, কবিগুরুর সেই কথা, “…যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে, তবে একলা চল রে…।”