বিদেশি নাগরিকদের ভ্রমণের সতর্কতা রুটিন ওয়ার্ক

|| প্রকাশ: ২০১৫-০৯-২৯ ১৯:৪৯:৩৮ || আপডেট: ২০১৫-০৯-২৯ ২১:২০:১৪

nasim. m_85112যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা ও অস্ট্রেলিয়া নাগরিকদের বাংলাদেশ সফরে সতর্কতা জারিকে রুটিন ওয়ার্ক বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

মঙ্গলবার বিকালে রাজধানীর ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্পাদকমণ্ডলীর এক জরুরি বৈঠক শেষে তিনি সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ মন্তব্য করেন।

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা ও অস্ট্রেলিয়া নাগরিকদের বাংলাদেশ সফরে সতর্কতা জারি করেছে বিষয়টি আপনার কিভাবে দেখছেন-সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটা তাদের রুটিন ওয়ার্ক। এনিয়ে ষড়যন্ত্রের কিছু দেখছি না।

গতকাল সোমবার রাজধানীর গুলশানে ইতালিয়ান নাগরিককে হত্যার ঘটনা জঙ্গির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নয় বলে দাবি করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জরিপে বেরিয়ে এসেছে তাদের চেয়েও বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতি ভালো। যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে হয়ে আসছে। অতএব, ইতালিয়ান নাগরিককে হত্যা করা হয়েছে, তার সঙ্গে কোনো জঙ্গির সংশ্লিষ্টতা নেই। এটা বিচ্ছিন্ন ঘটনা।

ইতালীয় নাগরিক খুনের দায় স্বীকার করেছে আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন আইএস, বিষয়টি কিভাবে দেখছেন-সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে নাসিম বলেন, এরকম কথা অনেকেই বলতে পারে। তবে এ বিষয়ে আমাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কথা বলেছেন।

জঙ্গি হামলার অজুহাতে বাংলাদেশে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট দল আসছেন না এবং ওই সময়ই ইতালিয়ান নাগরিককে হত্যা করা হয় এ বিষয়টিকে আওয়ামী লীগ কিভাবে দেখছে-এমন প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, জঙ্গি কথাটা শুধুই অজুহাত। এগুলো মিথ্যাচার ও অপপ্রচার। মানুষ এটা বিশ্বাস করে না। বাংলাদেশ জঙ্গি দমনে সফল এটা সারা বিশ্বে স্বীকৃত। বাংলাদেশে ক্রীড়াক্ষেত্রে কোনো সময়ে কোনো জঙ্গি হামলা ঘটেনি। আমাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন তাদের সর্বোচ্চ ও সর্বোত্তম নিরাপত্তা দেয়া হবে।

নাসিম বলেন, দুটি পুরস্কার পাওয়ায় দেশের জনগণের পক্ষে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানানো হয়েছে। এছাড়াও আমাদের সিদ্ধান্ত হয়েছে আগামী ৩ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুপুর দেড়টায় যখন জাতিসংঘরে কর্মসূচি শেষ করে দেশে ফিরবেন। তখন তাকে বাংলার জনগণের পক্ষে বিমানবন্দর থেকে গণভবন পর্যন্ত রাস্তার দুই পাশে দাঁড়িয়ে গণসংবর্ধনা দেয়া হবে।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, ঢাকামহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, আ. লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য আহমদ হোসেন, আব্দুর রাজ্জাক, আফজাল হোসেন, হাবিবুর রহমান সিরাজ, ফরিদুন্নাহার লাইলী, ফজিলাতুন্নেছা ইন্দিরা, কাপ্টেন (অব.) তাজুল ইসলাম, অসীম কুমার উকিল, মৃণাল কান্তি দাস প্রমুখ।

সানবিডি/ঢাকা/রাআ