ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবায় ঝুঁকছে ব্যাংক

সান বিডি ডেস্ক || প্রকাশ: ২০২১-০২-২৩ ১৬:১৩:২৯ || আপডেট: ২০২১-০২-২৩ ১৬:১৩:২৯

বর্তমান সময়ে পুরনো হতে শুরু করেছে অনলাইন ব্যাংকিং সেবা।কিছুদিন পূর্বেও ব্যাংকিং ‍খাতের জন্য অনলাইন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল। তবে এখন সেই গুরুত্ব চলে গেছে ডিজিটাল ব্যাংকিংয়ের কাতারে।

তথ্যপ্রযুক্তির কল্যাণে ব্যাংক এখন হাতের মুঠোয় চলে এসেছে। ব্যাংকিং করতে গ্রাহকদের এখন আর ব্যাংকে যেতে হয় না। ঘরে বসেই এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে টাকা ট্রান্সফার করা যাচ্ছে। শুধু তাই নয়, ব্যাংক এখন অ্যাপভিত্তিক সেবা দেওয়া শুরু করেছে। শুধু ব্যাংক থেকে ব্যাংকে নয়, ব্যাংক থেকে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সুবিধাও পাওয়া যাচ্ছে। সরকারি খাতের ও বেসরকারি খাতের সব ব্যাংকই ডিজিটাল সেবায় মনোযোগ দিচ্ছে।

অ্যাপভিত্তিক ব্যাংকিং শুরু করেছে রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী ব্যাংকও। এখন ঘরে বসেই সোনালী ই-সেবার মাধ্যমে ব্যাংকটিতে অ্যাকাউন্ট খোলা যাচ্ছে। বেসরকারি খাতের ইসলামী ব্যাংক সেলফিন অ্যাপ দিয়ে গ্রাহকদের সেবা দিচ্ছে। এভাবে পুরনো ব্যাংকের পাশাপাশি নতুন প্রজন্মের ব্যাংকগুলোও ডিজিটাল ব্যাংকিং সেবায় মনোযোগ দিচ্ছে। অর্থাৎ গ্রাম থেকে গ্রামে, শহর থেকে শহরে, শহর থেকে গ্রামে এবং গ্রাম থেকে শহরে ব্যাংকিং সেবা পৌঁছে যাচ্ছে।  বিশেষ করে ঘরে বসেই ইসলামী ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট খোলা যাচ্ছে। ঘরে বসেই নিজের একাউন্ট থেকে অন্য শাখার যেকোনো একাউন্টে টাকা পাঠানো যাচ্ছে। ব্যাংকটি সম্প্রতি এটিএম বুথের সংখ্যাও বাড়িয়েছে। এই এটিএম বুথ থেকে সব ধরনের লেনদেন হচ্ছে। এখান থেকেই মোবাইল ব্যাংকিং এমক্যাশের টাকা উঠানো যাচ্ছে। এর সঙ্গে  বিভিন্ন থানা উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে উপশাখা ও এজেন্ট শাখা থেকে গ্রাহকরা ডিজিটাল ব্যাংকিং সুবিধা পাচ্ছেন।

এখন ইসলামী ব্যাংকে না গিয়েও একাউন্ট খোলা যাচ্ছে। ব্যাংকে না গিয়েও টাকা উঠানো যাচ্ছে। চেক বই না থাকলেও টাকা উঠানো যাচ্ছে। শুধু মাত্র একটি মোবাইল হাতে থাকলেই যেকোনও এজেন্ট শাখা থেকে ফিঙ্গার দিয়ে টাকা উঠানো যাচ্ছে।

সানবিডি/এনজে

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •